ছেলের বিয়ে ঠেকাতে বউ-শাশুড়ির ধর্মঘট

130

ভারতের কোচবিহারে ছেলের দ্বিতীয় বিয়ে ঠেকাতে পুত্রবধূ ও তার সাড়ে তিন বছরের শিশু সন্তানকে নিয়ে বিয়ে বাড়ির সামনে ধর্মঘটে বসেন শাশুড়ি।

কোচবিহারের নিউটাউন এলাকায় বৃহস্পতিবার এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় পুলিশ জানায়, গৃহবধূর নাম সুলগ্না সাহা। শাশুড়ির নাম গায়ত্রী সাহা। অভিযুক্ত স্বামীর নাম দীপক কুমার সাহা। বিষয়টি নিয়ে এ দিন সুলগ্নাদেবী কোচবিহার কোতোয়ালি থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। তিনি ওই ঘটনায় উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি তুলেছেন।

কোচবিহারের পুলিশ সুপার ভোলানাথ পান্ডে বলেন, ওই ঘটনা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। গৃহবধূর সঙ্গে এ দিন থানায় যান কোচবিহার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মহানন্দ সাহা।

তিনি বলেন, ওই গৃহবধূর সঙ্গে প্রতারণা করা হয়েছে। এভাবে কেউ দ্বিতীয় বিয়ে করতে পারে না। অভিযুক্তের উপযুক্ত শাস্তির দাবি করেছি আমরা। কোচবিহার পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের অমরতলা এলাকার বাসিন্দা গায়ত্রী

দেবী। কোচবিহার বাজারে তাদের কাপড়ের ব্যবসা রয়েছে। ২০০৯ সালের ১১ সেপ্টেম্বর তার ছেলে দীপকবাবু সামাজিক মতে সুলগ্নাদেবীকে বিয়ে করেন। বিয়ের পড়ে তাদের একটি পুত্র সন্তান হয়।

সুলগ্নাদেবী অভিযোগ করেন, বিয়ের কিছুদিন পরে তিনি জানতে পারেন, তার স্বামীর সঙ্গে একাধিক নারীর সম্পর্ক রয়েছে। তা নিয়ে তিনি বহুবার প্রতিবাদও করেছেন। তবে তাতে কোনো কাজ হয়নি। এই অবস্থায় তিনি জানতে পারেন তার স্বামী তার বিরুদ্ধে ডিভোর্স মামলা করেছে। সেই সংক্রান্ত সঠিক কোনো তথ্য জানতেন না।

সুলগ্নাদেবী বলেন, আমরা প্রেম করে বিয়ে করেছিলাম। এখন সন্তানকে নিয়ে আমাদের বিপদের মুখে ঠেলে দেয়া হচ্ছে।

গায়ত্রীদেবী বলেন, বউমা সন্তান নিয়ে আমার সঙ্গে থাকেন। আমার ছেলে অন্যায় করছে। অন্যায়ের বিরুদ্ধে আমি দাঁড়িয়েছি। অভিযুক্ত দীপকবাবু সব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আমি আগের স্ত্রীকে ডিভোর্স দিয়েছি। সেই সংক্রান্ত কাগজপত্র আমার কাছে আছে। আমি অন্যায় কিছু করছি না।

Facebook Comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here