এই গরমে বিদ্যুৎ বিল কমানোর উপায়

0 ৫২

ঘরে ও বাইরে এখন প্রচণ্ড গরম। বৈশাখ মাস হলেও খুব একটা বৃষ্টির দেখা নেই। গরম থেকে বাঁচতে রাত-দিন ফ্যান চালাচ্ছেন, একটু সামর্থ্যবান হলে কিনে নিচ্ছেন এসি। তবে সমস্যা হচ্ছে বিদ্যুৎ বিল প্রতি মাসে বেড়েই চলেছে।। সেই সাথে বাতি, ফ্রিজ, কম্পিউটার, ওয়াশিং মেশিন, ওভেন, ব্লেন্ডার, আয়রন মেশিনসহ আরো অনেক কাজে বিদ্যুৎ খরচ তো হয়ই।

তবে এমন কিছু কৌশল আছে যেগুলো মেনে চললে বিদ্যুৎ বিল কমে যাবে বা অতিরিক্ত বিল আপনাকে দিতে হবে না। আসুন জেনে নেই গরমে বিদ্যুৎ বিল কমানোর কিছু কৌশল।

১. অহেতুক অপচয় করার মানসিকতা বাদ দিতে হবে। বাড়িতে অনেকগুলো ঘর থাকলে যে ঘরে কেউ থাকছে না সে ঘরের বাতি ও ফ্যান বন্ধ রাখুন।

২. ঘর থেকে বাইরে গেলে বাতি, ফ্যান ও অন্যান্য বৈদ্যুতিন যন্ত্রের সুইচ বন্ধ করে বের হন।

৩. লোডশেডিংয়ের সময় সমস্ত ইলেকট্রিক্যাল অ্যাপ্লায়েন্স প্লাগ থেকে খুলে রাখুন। না হলে কারেন্ট এলে এক ঝটকায় বিল চড়চড় করে বাড়বে।

৪. প্রাকৃতিক আলো-হাওয়ায় ভরসা রাখতে হবে। ঘরের দেয়াল, ছাদ, পর্দা ও আসবাবপত্র সমূহে সাদা রঙের ব্যবহার করলে বিদ্যুৎ খরচ কম হয়। ঘর ঠাণ্ডা থাকে।

৫. বাড়ির এমন জায়গায় ফ্রিজ রাখুন, যেখানে ঠিকভাবে হাওয়া চলাচল করে। ফ্রিজের গায়ে যেন রোদ না পড়ে, কারেন্ট বেশি পুড়বে।

৬. ফ্রিজে গরম খাবার রাখবেন না। গরম খাবার রাখলে মাসে এক দিন ফ্রিজ খালি করুন। ফ্রিজ পরিষ্কার করুন ও অপ্রয়োজনে ফ্রিজ চালাবেন না।

৭. ফ্রিজের নীচে বা পিছনে থাকা কন্ডেনসার কয়েলটি ভ্যাকিউম ক্লিন করুন। ময়লা জমে থাকলে, ইলেকট্রিক বিল প্রায় ২৫ শতাংশ বেড়ে যায়।

৮. ফ্রিজের দরজা বাড়ে বাড়ে খুলবেন না। এতে কারেন্ট অনেক বেশি পোড়ে।

৯. টিভি, কম্পিউটার কখনওই স্ট্যান্ড বাই মোড-এ রাখবেন না। চলাকালীন যত না কারেন্ট পোড়ে, এই অবস্থায় রাখলে তার থেকে ৯০ শতাংশ বেশি বিদ্যুৎ খরচ হয়।

১০. টিভি সবসময় মেন সুইচ থেকে অফ করুন। রিমোট থেকে নয়।

১১. এসি’র তাপমাত্রা ২৪ থেকে ২৬-এর মধ্যে রাখুন।

১২. এসি চালানোর ব্যাপারে সতর্ক হন। সারারাত এসি চালাবেন না। তিন ঘন্টা এসি চালানোর পর ফ্যান চালিয়ে দিন।

১৩. একবারে অনেকগুলো কাপড় একসঙ্গে ইস্ত্রি করুন। ততে বিদ্যুৎ খরচ বাঁচবে।

১৪. এলইডি আলো প্রচুর বিদ্যুৎ বাঁচায়। বাড়িতে এলইডি লাইট ব্যবহার করুন।

১৫. ল্যাপটপ, মোবাইল এবং ডিজিটাল ক্যামেরাসহ অন্যান্য বৈদ্যুতিক সরজ্ঞাম চার্জ দেওয়ার পর চার্জার খুলে রাখুন।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

Comments
Loading...