আপনি এতো কথা বলেন কেন, ঘর আপনিই ভেঙেছেন: ইউএনও

0 ১৪১

দুমাস আগে হস্তান্তর করা হয়েছে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর। কিন্তু এরইমধ্যে কোনোটির পিলার ভেঙে পড়ছে, কোনোটিতে দেখা দিয়েছে ফাটল। এমন বেহাল দশা ঝিনাইদহের লাউদিয়া আশ্রয়ণ প্রকল্পের প্রতিটি ঘরে। যদিও একে ষড়যন্ত্র বলে দাবি, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার।

ভূমিহীন ফাতেমা খাতুন। দুমাস আগেই প্রধানমন্ত্রীর দেয়া উপহারের ঘরে পেয়েছেন মাথা গোঁজার ঠাই। শুক্রবার রাতে হঠাৎ ভেঙে পড়ে তার ঘরের খুঁটি। যা পরিদর্শনে গিয়ে উল্টো তাকেই দায়ি করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এস এম শাহীন।

ঝিনাইদহ সদরের লাউদিয়া আশ্রয়ণ প্রকল্পের প্রায় সব ঘরেরই এমন বেহাল দশা। বেশিরভাগ ঘরেই দেখা দিয়েছে ফাটল। অভিযোগ, ব্যবহার করা হয়েছে নিম্নমানের সামগ্রী। যে কোন মুহূর্তে ঘর ভেঙে পড়ার শঙ্কায় দিন কাটছে, এখানকার বাসিন্দাদের।

এ বিষয়ে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিলেও ক্যামেরায় কথা বলতে রাজি নন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা। আর জেলা প্রশাসক মজিবর রহমানের হুঁশিয়ারি, অনিয়ম হলে ছাড় দেয়া হবে না কাউকেই।

লাউদিয়া আশ্রয়ণ প্রকল্পে বাস করেন ২২ টি পরিবারের শতাধিক মানুষ।

শীর্ষনিউজ

Comments
Loading...