আলেমদের গ্রেফতারে নির্মূল করা যাবে না ইসলামের অগ্রযাত্রা

বিভিন্ন ইসলামী দলের নেতৃবৃন্দ

0 ৭৭

আল্লাহকে ভয় করুন। ক্ষমতা কারো জন্য চিরস্থায়ী নয়। যিনি ক্ষমতা দিয়েছেন, তিনি ক্ষমতা চিনিয়েও নিতে পারেন। আলেম-উলামা ও ইসলামী নেতৃবৃন্দকে গ্রেফতার ও হয়রানি বন্ধ করুন। আলেম-উলামাদের গ্রেফতার ও হয়রানি করে ইসলামের অগ্রযাতা নির্মূল করা যাবে না। গতকাল রোববার বিভিন্ন ইসলাম দলের নেতৃবৃন্দ পৃথক পৃথক বিবৃতিতে এসব কথা বলেন।

বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস : বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের আমীর শায়খুল হাদীস আল্লামা ইসমাঈল নূরপুরী, নায়েবে আমীর মাওলানা আফজালুর রহমান, মাওলানা রেজাউল করিম জালালী, মাওলানা আলী উসমান, মুফতি সাঈদ নূর ও যুগ্মমহাসচিব মাওলানা আব্দুল আজিজ গতকাল এক বিবৃতিতে বলেন, বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের সিনিয়র নায়েবে আমীর মাওলানা ইউসুফ আশরাফকে তার ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান থেকে ডিবি পরিচয়ে তুলে নিয়ে যায়। নেতৃবৃন্দ বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের মহাসচিব সিনিয়র নায়েবে আমীর মাওলানা ইউসুফ আশরাফসহ আটককৃত সকলকে নিঃশর্ত মুক্তি দেয়ার জন্য সরকারের প্রতি আহবান জানান। অন্যথায় আলেম-উলামারা ঐক্যবদ্ধভাবে কঠোর কর্মসূচি দিতে বাধ্য হবে।নেতৃবৃন্দ আরও বলেন, আলেম-উলামা ও ইসলামী নেতৃবৃন্দকে গ্রেফতার ও হয়রানি বন্ধ করুন। আলেমদের গ্রেফতার ও হয়রানি করে ইসলামের অগ্রযাতা নির্মূল করা যাবে না। নেতৃবৃন্দ বলেন, আল্লাহকে ভয় করুন। ক্ষমতা কারো জন্য চিরস্থায়ী নয়। যিনি ক্ষমতা দিয়েছেন, তিনি ক্ষমতা চিনিয়েও নিতে পারেন।

ইসলামী আন্দোলন ঢাকা মহানগর : ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর সহকারী মহাসচিব ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি মাওলানা মুহাম্মদ ইমতিয়াজ আলম বলেছেন, সরকার নিরীহ নিরাপরাধ আলেমদেরকে গ্রেফতার করে রিমান্ডে নিয়ে হয়রানি ও নির্যাতন করছে। বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের নায়েবে আমীর মাওলানা ইউসুফ আশরাফসহ নিরীহ আলেমদের অবিলম্বে মুক্তি দিতে হবে। তিনি বলেন, রমজান মাস ইবাদতের মাস, তাকওয়া অর্জনের মাস, সিয়াম সাধারনার মাস। রমজান মাসে উলামায়ে কেরাম ঠিকমত ইবাদত বন্দেগী করতে পারছে না। সর্বক্ষণ আতঙ্কে দিনাতিপাত করছেন। গতকাল বাদ আসর ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা মহানগর দক্ষিণের গেন্ডারিয়া থানা শাখা আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। থানা সভাপতি আলহাজ ফারুক হোসেনের সভাপতিত্বে এবং সেক্রেটারী হাকিম মাওলানা আনোয়ার হোসেনের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় আরো বক্তব্য রাখেন, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ জয়েন্ট সেক্রেটারী ডা. শহিদুল ইসলাম ও থানা ওয়ার্ড নেতৃবৃন্দ।আল-হাইআতুল

উলয়া লিল-জামিআতিল কওমিয়া বাংলাদেশ : উদ্ভূত পরিস্থিতিতে কওমি মাদরাসার যে সকল নিরীহ ছাত্র, শিক্ষক, আলেম-উলামা, ধর্মপ্রাণ মুসলমান এবং মসজিদের ইমাম ও মুসল্লিদেরকে গ্রেফতার করা হয়েছে, রমজানের এই রহমতের মাস বিবেচনায় সরকারের নিকট তাদের মুক্তির আহ্বান জানানো হয় এবং নিরীহ আলেম-উলামা, মাদরাসার ছাত্র ও ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের হয়রানি না করার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ করা হয়। গতকাল রোববার আল-হাইআতুল উলয়া লিল-জামিআতিল কওমিয়া বাংলাদেশ এর স্থায়ী কমিটির এক সভা জামিয়া ইসলামিয়া দারুল উলূম মাদানিয়া যাত্রাবাড়ী মাদরাসায় অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন আল-হাইআতুল উলয়ার চেয়ারম্যান আল্লামা মাহমুদুল হাসান। সভায় কওমি মাদরাসার ছাত্র ও শিক্ষকগণ প্রচলিত সর্বপ্রকার রাজনীতি থেকে মুক্ত থাকবে মর্মে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। এ ব্যাপারে ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

inqilab

Comments
Loading...