উপকূলে আছড়ে পড়েছে ‘গুলাব’

0 ১৩

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় ‘গুলাব’ আছড়ে পড়েছে ভারতের অন্ধ্র ও ওডিশা রাজ্যের উপকূলে। ঘূর্ণিঝড়টি আগামী তিন ঘণ্টায় অন্ধ্র প্রদেশের কলিঙ্গাপত্তনম এবং ওডিশার গোপালপুরের মধ্যবর্তী উপকূল অতিক্রম করবে।

রবিবার সন্ধ্যায় ভারতের আবহাওয়া বিভাগ (আইএমডি) টুইট করে এই তথ্য জানিয়েছে।

ভারতীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়, আইএমডি টুইটে বলেছে, ঘূর্ণিঝড় গুলাব উপকূলীয় অঞ্চলগুলোতে আঘাত হেনেছে এবং এইভাবে উত্তর উপকূলীয় অন্ধ্রপ্রদেশ ও তৎসংলগ্ন দক্ষিণ উপকূলীয় ওডিশায় ল্যান্ডফল প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। পরবর্তী তিন ঘণ্টার মধ্যে কলিঙ্গাপত্তনম থেকে ২৫ কিলোমিটার উত্তরে কলিঙ্গাপত্তনম এবং গোপালপুরের মধ্যে উপকূল অতিক্রম করবে।

হাজার হাজার মানুষকে উপকূল থেকে সরিয়ে নিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন। প্রস্তুত রাখা হয়েছে আশ্রয় ও ত্রাণ শিবির।

গুলাবের প্রভাবে পশ্চিমবঙ্গের কয়েকটি জেলার সমুদ্র উপকূলবর্তী এলাকায় প্রবল ঝড়বৃষ্টি হচ্চে। এতে উত্তাল হয়ে উঠেছে সমুদ্র। আশঙ্কা রয়েছে জলোচ্ছ্বাসেরও। এমন পরিস্থিতি মোকাবিলায় গতকাল শনিবারই পশ্চিমবঙ্গের উপকূলবর্তী এলাকায় সতর্কতা জারি করেছে কলকাতার আলিপুর আবহাওয়া অফিস।

এর আগে চলতি বছরের ২৬ মে ঘূর্ণিঝড় ‘ইয়াস’ আঘাত হানে ওডিশা ও পশ্চিমবঙ্গে। সেদিন সকাল নয়টার দিকে ইয়াস প্রথম আছড়ে পড়ে ওডিশার বালেশ্বরের দক্ষিণে। ইয়াসের তাণ্ডবে ওডিশায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়। ঝড়ে ক্ষতির মুখে পড়ে পশ্চিমবঙ্গের পূর্ব মেদিনীপুর এবং উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলাও।

এদিকে ঘূর্ণিঝড় ‘গুলাব’ এর প্রভাব পড়েছে বাংলাদেশেও। রাজধানী ঢাকাসহ বিভিন্ন এলাকায় বৃষ্টিপাত হচ্ছে।আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা এবং পায়রা সমুদ্র বন্দর সমূহকে দুই নম্বর দূরবর্তী হুঁশিয়ারি সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। আবহাওয়াবিদ একে এম নাজমুল হক বলেন, বাংলাদেশের উপকূলে এর কোনো প্রভাব অথবা আঘাত করার সম্ভাবনা নেই। দেশের দক্ষিণাঞ্চলের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী বর্ষণ হতে পারে।

ঢাকাটাইমস

Comments
Loading...