ঢাবির সাবেক শিক্ষার্থীকে ডিবি পরিচয়ে তুলে নেয়ার অভিযোগ

0 ৬১

রাজধানীর গাবতলী বাসস্ট্যান্ড থেকে ফেরদৌস আহমদ নামের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক এক শিক্ষার্থীকে ডিবি পরিচয়ে তুলে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ফেরদৌস ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের ২০০৫-০৬ বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। বর্তমানে রাজধানীর ধোলাইরপাড়ের একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করেন। তার গ্রামের বাড়ি সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার উলুডাঙ্গায়।

তার বড় ভাই রাজু আহমেদ যুগান্তরকে জানান, সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টা থেকে তার ভাইয়ের কোনো খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না। স্ত্রীর সঙ্গে ফেরদৌসের সর্বশেষ সন্ধ্যা ৭টা ২মিনিটে কথা হয়েছে।

‘মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টায় মিন্টুরোডে ডিবি কার্যালয়ে খোঁজ নিতে গেলে হেল্প ডেস্ক থেকে বলা হয়েছে, যদি ধরে নিয়ে যাওয়া হয়, তবে পরে আপনাদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হবে।’

রাজু আরও বলেন, ‘ফেরদৌসের বিরুদ্ধে থানায় কোনো মামলা বা অভিযোগ ছিল না। তবে কেন তাকে ডিবি তুলে নিয়ে গেল বুঝতে পারছি না।’

ফেরদৌস আহমেদের স্ত্রী আঞ্জুমারা বেগম নির্বাচন কমিশন চুয়াডাঙ্গার সদর কার্যালয়ে অফিস সহায়ক পদে চাকরি করেন।

তিনি যুগান্তরকে বলেন, ‘আমি নতুন চাকরি পেয়েছি। চুয়াডাঙ্গায় সে আমার সঙ্গে দেখা করতে যাওয়ার জন্য রওনা দিয়েছিল। কিন্তু তাকে ডিবি ধরে নিয়ে গেছে বলে জানতে পারি।’

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ডিএমপির গণমাধ্যম শাখার প্রধান ওয়ালিদ হোসেন যুগান্তরকে বলেন, ‘এ সম্পর্কে আমার কাছে কোনো তথ্য নেই।’

এদিকে ফেরদৌস আহমেদকে কোথাও খুঁজে না পেয়ে রাজধানীর দারুসসালাম থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করতে যান রাজু।

তবে জিডি না নিয়ে ফেরদৌসকে ডিবি নিয়ে গেছে বলে থানার এসআই নজরুল ইসলাম তাকে জানান।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে এসআই নজরুল যুগান্তরকে বলেন, ‘আমি ফেরদৌসের ভাইকে বলেছি, তাকে ডিবি নিয়ে গেছে। তাকে সেখানে খোঁজ নিতে বলেছি।’

উৎসঃ   jugantor

Comments
Loading...