দুনিয়াতে দুর্বলের শাসন সবসময়েই ভয়ংকর

0 ১৭

আমার অনুমান হাসিনা বেগম জিয়াকে দেশের বাইরে নিয়ে যেতে দেবে তখুনি যখন সে নিশ্চিত হবে দেশের বাইরেও আর কিছুই করার নেই। তাহলে বেগম জিয়াকে ইচ্ছাকৃতভাবে হত্যা করার দায়ও নিতে হবেনা আর হাসিনা তখন নিশ্চিত হবে বেগম জিয়া আর ফিরে আসছেন না। অথচ প্রথমেই বিদেশে পাঠানো গেলে লিভার ট্রান্সপ্লান্ট করে বেগম জিয়া সুস্থ হয়েই ফিরে আসতেন।

আমার কানে বাজছে হাসিনার, “মারে আল্লাহ রাখে কে” এই কথাটা।

হাসিনার দলের নেতা সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত বলেছিলেন, বাঘে ধরলে বাঘে ছাড়ে শেখ হাসিনা ধরলে ছাড়েনা। দুনিয়াতে দুর্বলের শাসন সবসময়েই ভয়ংকর। দুর্বল সবসময়েই প্রতিহিংসাপরায়ণ।

দুর্বলের ভয় সংখ্যাকে। দুর্বলের ভয় প্রতিপক্ষের জনপ্রিয়তাকে। খেয়াল করে দেখবেন, শাসক যতই অজনপ্রিয় হয় সে ততো নির্মম হয়, ভয়ানক হয় ততো নিপিড়ক হয়। ঠিক এই কারণেই সংখ্যাগুরুকে শাসন করতে দেয়া হয়।

দুর্বল ভয় দেখিয়ে শাসন করে। দুর্বলের শাসনের মুল চালিকাশক্তি “ভয়”। ভয়কে জয় যেদিন করতে পারবে বাংলাদেশের মানুষ সেদিনই মুক্তি, তার আগে নয়।

বিএনপির উচিৎ প্রত্যেকদিন বেগম জিয়ার স্বাস্থ্য বুলেটিন প্রকাশ করা বিভিন্ন ভাষায়। সেটা সব এমব্যাসিতে পাঠানো উচিৎ। প্রত্যেকদিন যে উনাকে মৃত্যুর দিকে ইচ্ছে করে ঠেলে দেয়া হচ্ছে সেটা বুঝানোর জন্য দৈনিক স্বাস্থ্য বুলেটিনের বিকল্প নাই। পশ্চিমাদেরকেও বলতে হবে, আপনারা এই ভদ্রমহিলার জন্য কিছুই করলেন না।

বেগম জিয়াকে হাসিনা বাচতে দেবেনা এটা আগেই পরিকল্পনা করা আছে। তাই এটা মাথায় রেখেই সব পরিকল্পনা করা উচিৎ।

পিনাকী ভট্টাচার্য

Comments
Loading...