পিটিয়ে ও মাথা থেঁতলে তরুণকে হত্যা

0 ৪৯

রাজধানীর শাহজাহানপুর রেল কলোনিতে এক তরুণকে পিটিয়ে ও ইটের আঘাতে মাথা থেঁতলে হত্যা করা হয়েছে। নিহত তরুণের নাম  সুজন হাওলাদার (২২)। তিনি আসবাব তৈরির মিস্ত্রি ছিলেন। বুধবার এ হত্যাকাণ্ড ঘটে। 

এ ঘটনায় জড়িত অভিযোগে দুজনকে আজ বৃহস্পতিবার গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ঘটনা সম্পর্কে পুলিশ জানিয়েছে, সুজন সপরিবারে খিলগাঁও তিলপাপাড়ায় থাকতেন। বুধবার সকালে শাহজাহানপুর রেল কলোনিতে সুজনের সঙ্গে তার বন্ধু এরশাদের হাতাহাতি হয়। একপর্যায়ে সুজনকে ধরে এরশাদ শাহজাহানপুর কলোনিতে তার বাসায় নিয়ে যান। তখন এরশাদ, তার মা, বোন, দুই ভাই ও কয়েকজন বন্ধু মিলে সুজনকে মারধর করে ও রড দিয়ে পেটান। সেইসঙ্গে সুজনের মাথা ইটের আঘাতে থেঁতলে দেন। তারাই আবার সুজনকে রক্তাক্ত অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখান থেকে সুজনের স্বজনেরা তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য মোহাম্মদপুর কলেজ গেটের একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যান। কিছুক্ষণ পর সুজন সেখানে মারা যান। পরে স্বজনেরা লাশ শাহজাহানপুর থানায় নিয়ে যান। পরে পুলিশ লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। গতকাল রাতেই সুজনের বাবা আবদুর রহমান বাদী হয়ে এরশাদ, তার মা, বোন, দুই ভাইসহ কয়েকজনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেন। ওই মামলায় এরশাদের মা ও বোনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

শাহজাহানপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শহিদুল হক গণমাধ্যমকে বলেন, এ ঘটনায় এরশাদের মা ও বোনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্যদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

বিডি প্রতিদিন

Comments
Loading...