পদ্মায় ভেসে উঠলো মাইক্রোবাস চালকের মরদেহ

0 ১৯১

ঝড়ের কারণে দৌলতদিয়া ৫ নম্বর ফেরিঘাটের পন্টুনের তার ছিঁড়ে পদ্মায় ডুবে যাওয়া মাইক্রোবাসের চালক মারুফ হোসেনের (৪০) মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

ঘটনার দুই দিন পর বৃহস্পতিবার (১৩ মে) সকাল সোয়া ৮টার দিকে দৌলতদিয়া ৭ নম্বর ফেরিঘাটের নিচ থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে রাজবাড়ী ফায়ার সার্ভিস ও পাটুরিয়ার ডুবুরি দল।

বিষয়টি নিশ্চিত করে দৌলতদিয়া নৌপুলিশ ফাঁড়ির ওসি মো. মুন্নাফ আলী শেখ গণমাধ্যমকে জানান, সকালে দৌলতদিয়া ৭ নম্বর ফেরিঘাটের নিচের দিকে পদ্মায় একটি মরদেহ ভাসতে দেখে স্থানীয়রা তাদের খবর দেন। খবর পেয়ে ডুবুরি দল মরদেহ উদ্ধার কার্যক্রম শুরু করে। পরে মারুফ হোসেনের পরিবারের সদস্যদের এ বিষয়ে খবর দেওয়া হয়।

নিহত চালক মারুফ হোসেনের বাড়ি সিলেটে কিন্তু তিনি ঢাকার রামপুরায় থাকতেন। তিনি ৩ কন্যাসন্তানের বাবা ছিলেন।

দৌলতদিয়া ঘাট প্রান্তে মঙ্গলবার (১১ মে) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে পদ্মা নদীতে হঠাৎ ঝড়ো হাওয়ার সৃষ্টি হয়। ঝড়ো হাওয়ায় দৌলতদিয়া ফেরি ঘাটের ৫ নম্বর ঘাটের ফেরিতে গাড়ি উঠার র‌্যামে অবস্থানরত ঢাকা মেট্রো-চ- ১৪-২৬০৮ একটি মাইক্রোবাস পদ্মা নদীতে পড়ে তলিয়ে যায়। তাৎক্ষণিক খবর পেয়ে উদ্ধার অভিযান শুরু করে রাজবাড়ী ফায়ার সার্ভিস ও পাটুরিয়ার ডুবুরি দল।

Comments
Loading...