ফাইজারের করোনা টিকার কার্যকারিতা কমছে : গবেষণা

0 ২১

বিশ্বের দু’স্থান থেকে প্রকাশিত গবেষণায় দেখা গেছে ফাইজারের করোনা টিকার কার্যকারিতা কমছে। বুধবার প্রকাশিত ওই গবেষণা প্রতিবেদনে দেখা গেছে ফাইজারের দু’ডোজ করোনা টিকা নেয়ার দু’মাস পর থেকে এ টিকার কার্যকারিতা কমতে শুরু করে। তবে করোনার মারাত্মক সংক্রমণ, হাসপাতালে ভর্তি ও মৃত্যু থেকে রেহাই পাওয়া যায় এ টিকা গ্রহণে।

ইসরাইল ও কাতার থেকে পাওয়া গবেষণা অনুসারে নিউ ইংল্যান্ড জার্নাল অফ মেডিসিনে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে। ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ফাইজারের দু’ডোজ করোনা টিকা নেয়ার দু’মাস পর থেকে এ টিকার কার্যকারিতা কমতে শুরু করে। এ কারণে বলা হচ্ছে যে সম্পূর্ণ টিকা গ্রহণের পরেও করোনা সংক্রমণের বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে।

ইসরাইল থেকে পাওয়া এক গবেষণায় দেখা গেছে, স্বাস্থ্যসেবার সাথে জড়িত চার হাজার আট শ’ কর্মকর্তা দু’ডোজ করোনা টিকা নেয়ার পরেও তাদের শরীরে এন্টিবডির সংখ্যা কমছে। বিশেষ করে পুরুষদের মধ্যে এ প্রবণতা বেশি দেখা গেছে। যে সকল ব্যক্তির বয়স ৬৫ বছরের বেশি বা যাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কম তারা এ সমস্যায় বেশি ভুগছেন।

শেবা মেডিকেল সেন্টারের ডা: গিলি রেগেভ-জোচে ও তার সহকর্মীরা লিখেছেন, মানব স্বাস্থ্যের মারাত্মক সব রোগের চিকিৎসা দেয়ার ক্ষেত্রে ইসরাইলের বিখ্যাত চিকিৎসা কেন্দ্র হলো শেবা মেডিকেল সেন্টার। এ হাসপাতালের স্বাস্থ্যসেবার সাথে জড়িত কর্মকর্তাদের ওপর দীর্ঘ গবেষণার পর আমরা এমন ফলাফল পেয়েছি।

এদিকে কাতারের পরিচালিত গবেষণায় দেখা গেছে, কাতার একটি ছোট উপসাগরীয় দেশ হওয়ার পরেও তাদের অধিকাংশ নাগরিককে করোনা টিকা দেয়া হয়েছে। কিন্তু, এ করোনা টিকা গ্রহণের পরেও অনেকে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। কাতারের অধিকাংশ মানুষ ফাইজার-বায়োটেকের ভ্যাকসিন নিয়েছেন।

কাতারের ওয়েইল কর্নেল মেডিসিনের কর্মকর্তা লাইথ আবু-রাদ্দাদ ও তার সহকর্মীরা লিখেছেন, ফাইজার-বায়োটেকের প্রথম ডোজ টিকা গ্রহণের পর মানব শরীরে দ্রুত করোনা প্রতিরোধক ব্যবস্থা তৈরি হয়। পরের মাসে ফাইজার-বায়োটেকের দ্বিতীয় ডোজ টিকা গ্রহণের পর শরীরে করোনা প্রতিরোধক ব্যবস্থা আরো শক্তিশালী হয়। পরে প্রত্যেক মাসে করোনা প্রতিরোধক ব্যবস্থা বা এন্টিবডি কমতে থাকে। বিশেষ করে টিকা গ্রহণের চার মাস পরে করোনা প্রতিরোধক ব্যবস্থা দুর্বল হতে থাকে।

সূত্র : সিএনএন

Comments
Loading...