কাদের মোল্লার পূর্ণাঙ্গ রায় যেকোনো দিন

0 ১৩

image_56030দিবার্তা.কম

ঢাকা: মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে জামায়াতে ইসলামীর সহকারি সেক্রেটারি জেনারেল আবদুল কাদের মোল্লাকে ফাঁসির আদেশ দিয়ে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের দেয়া পূর্ণাঙ্গ রায় লেখা সম্পন্ন হয়েছে। তবে তা এখনো খসড়া পর্যায়ে রয়েছে।
এই খসড়া চূড়ান্ত করে তাতে পাঁচ বিচারপতি স্বাক্ষর করার পরই পুর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ করা হবে।
বিষয়টি অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল এমকে রহমান সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, “কাদের মোল্লার ফাঁসির পূর্ণাঙ্গ রায় লেখা সম্পন্ন হয়েছে। আশা করি দুএকদিনের মধ্যে এ রায় প্রকাশিত হবে।”
অপরদিকে কাদের মোল্লার আইনজীবী অ্যাডভোকেট এম তাজুল ইসলাম বলেন, “পূর্ণাঙ্গ রায় পাওয়ার পরই রিভিউ আবেদন দাখিল করা হবে।”
প্রধান বিচারপতি মো. মোজাম্মেল হোসেনের নেতৃত্বে আপিল বিভাগে পাঁচ বিচারপতির বেঞ্চ গত ১৭ সেপ্টেম্বর কাদের মোল্লার বিরুদ্ধে সংক্ষিপ্ত এক রায়ে মৃত্যুদণ্ডের রায় ঘোষণা করেন।
আপিল বিভাগের এ রায়ের কপি কারাগারে না যাওয়ায় এখনো কনডেম সেলে পাঠানো হয়নি আবদুল কাদের মোল্লাকে। ফলে যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত বন্দি হিসেবে আগের মতো সাধারণ সেলেই আছেন তিনি।
প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বে আপিল বিভাগের পাঁচ বিচারপতির মধ্যে চার বিচারপতি মৃত্যুদণ্ড দিয়ে রায় দেন। একজন তাদের সঙ্গে দ্বিমত পোষণ করে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড বহাল রাখেন। কিন্তু তাদের দেয়া এই রায় এখনো প্রকাশিত হয়নি।

জানা গেছে, মৃত্যুদণ্ডের পক্ষে চার বিচারপতির মধ্যে দুইজন রায় লিখেছেন। একজন ৪৯০ পৃষ্ঠা এবং অপরজন দুই শতাধিক পৃষ্ঠার রায় লেখেন। মৃত্যুদণ্ডের পক্ষে যুক্তি ও আইনী ব্যাখ্যা সম্বলিত এ রায় দেয়া হয় দ্বিমতপোষণকারী বিচারপতির কাছে। এরপর সংশ্লিষ্ট বিচারপতি রায় লেখা শুরু করেন।
জানা গেছে, রোববার ওই বিচারপতিরও রায় লেখা শেষ হয়েছে। তিনি যাবজ্জীবন সাজার পক্ষে মত দিয়ে দুই শতাধিক পৃষ্ঠার রায় লিখেছেন। এই তিন বিচারপতির লেখা রায় এখন প্রধান বিচারপতির কাছে যাবে বলে জানা গেছে।
সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানা গেছে, তিনজনের লেখা রায় সমন্বয় ও একত্রিত করে চূড়ান্ত করা হবে। এরপর তাতে প্রধান বিচারপতিসহ সংশ্লিস্ট বিচারপতিরা স্বাক্ষর করবেন। এই স্বাক্ষরের পর তা প্রকাশ করা হবে। চলতি সপ্তাহেই তা চূড়ান্ত করে প্রকাশ করা হবে বলে জানা গেছে।
বাংলাদেশের ইতিহাসে একাত্তরে স্বাধীণতা যুদ্ধের সময় গণহত্যা, হত্যা, ধর্ষণসহ মানবতাবিরোধী অপরাধের কোনো মামলায় এই প্রথম দেশের সর্বোচ্চ আদালত রায় ঘোষণা করেছেন। যা প্রকাশের অপেক্ষায় রয়েছে।
গত ৫ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের রায়ে তার সর্বোচ্চ যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ হয়েছিল।

Comments
Loading...