কালের কণ্ঠে ছাত্রশিবিরকে জড়িয়ে মিথ্যা ও ভিত্তিহীন খবর প্রকাশের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ: বিজ্ঞপ্তি

0 ১৪

Shibirদৈনিক কালের কণ্ঠে ‘চিরকুট ও ম্যাপে হিটলিষ্ট’ শীর্ষক প্রতিবেদনে ছাত্রশিবিরকে জড়িয়ে মিথ্যা ও ভিত্তিহীন খবর প্রকাশের তীব্র নিন্দা এবং প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির।
এক যৌথ প্রতিবাদ বার্তায় ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি আবদুল জব্বার ও সেক্রেটারী জেনারেল মো. আতিকুর রহমান বলেন, সাংবাদিকতা নয়, একটি মহলের অপপ্রচারের হাতিয়ারে পরিণত হয়েছে কালের কণ্ঠ। সাংবাদিকতার দায়িত্বশীল ও নৈতিক অবস্থানকে বিসর্জন দিয়ে ছাত্রশিবিরকে জড়িয়ে অন্ধভাবে ধারাবাহিক অপপ্রচার করে যাচ্ছে এই গণমাধ্যমটি। আজকেও জননিরাপত্তার নিশ্চিত করতে পুরোপুরি ব্যর্থ পুলিশ ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর রাজনৈতিক বক্তব্যের বরাত এবং নিজেদের আষাঢ়ের গল্পের সমন্বয়ে প্রতিবেদনের নামে ছাত্রশিবিরকে জড়িয়ে বানোয়াট উপন্যাস রচনা করা হয়েছে। দেশকে অস্থিতিশীল করার পরিকল্পনা করেছে জামায়াত-শিবির, হিটলিষ্ট ও চিরকুট উদ্ধার হয়েছে, গ্রেপ্তারকৃত মাসুদ শিবির কর্মী এমন বানোয়াট গল্প জুড়ে দিয়ে ইচ্ছামত কুৎসা রটনা করা হয়েছে প্রতিবেদনে। আসলে জামায়াত-শিবির দেশকে অস্থিতিশীল করতে চায়না বরং ব্যর্থতায় সৃষ্ট পরিস্থিতিকে পুঁজি করে সরকার পুলিশ ও কালের কন্ঠের মত গণমাধ্যমের অনৈতিক সহায়তায় মিথ্যা নাটক সাজিয়ে রাজনৈতিক স্বার্থ হাসিল করতে চাইছে। আর হিটলিষ্ট, চিরকুট ও গ্রেপ্তারকৃত মাসুদ সেই মিথ্যা নাটকের সাজানো উপাদান মাত্র। এগুলোর সাথে ছাত্রশিবিরের দূরতম কোন সম্পর্ক নেই। এ বিষয়ের আমাদের সুষ্পষ্ট বক্তব্য থাকার পরও একই বিষয়ে ঘুরিয়ে ফিরিয়ে বার বার এমন নিকৃষ্ট অপপ্রচারের নিন্দা জানাতেও আমাদের লজ্জা হচ্ছে। আওয়ামী মন্ত্রী, এমপি, পুলিশ, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও কালের কন্ঠের মিথ্যাচার একই সুত্রে গাথা। মূলত একদিকে নিজেদের ব্যর্থতা আড়াল অন্যদিকে এসব ঘটনাকে পুঁজি করে জামায়াত-শিবির নেতাকর্মীদের উপর জুলুম নির্যাতন করার সুযোগ তৈরীর জন্য এই সিন্ডিকেট অপপ্রচার করা হচ্ছে তাতে সচেতন দেশবাসীর কোন সন্দেহ নেই।
নেতৃবৃন্দ বলেন, রাজনৈতিক সংকির্ণতা থেকে মুক্ত হতে পারলে কালের কন্ঠের উচিৎ সাংবাদিকতার মহান পেশাকে প্রশ্নবিদ্ধ না করে কলম ছেড়ে দিয়ে রাজনৈতিক ময়দানে অবতীর্ণ হওয়া। দেশাবাসী কোন গণমাধ্যমকে রাজনৈতিক অপপ্রচারের হাতিয়ার হিসেবে দেখতে চায়না। অপপ্রচারের কারণে কারো জান মালের ক্ষতি হলে কালের কণ্ঠ তার দায় এড়াতে পারবে না।
নেতৃবৃন্দ সত্য প্রকাশের স্বার্থে এ ধরণের মিথ্যা ও ভিত্তিহীন প্রতিবেদন প্রকাশ থেকে বিরত থাকতে সংশ্লিষ্ট প্রতিবেদক ও গণমাধ্যমের প্রতি আহ্বান জানান।

Comments
Loading...