ছাত্রীদের ব্ল্যাকমেইল করে নগ্ন ভিডিও প্রকাশ

0

mobile_Vটাঙ্গাইল: কম্পিউটার প্রশিক্ষণ দেয়ার নাম করে স্কুল কলেজের ছাত্রীদের ব্ল্যাকমেইল করেছে মির্জাপুর উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চল আনাইতারা ইউনিয়নের চামারী ফতেপুর বাজারের সিয়াম ডিজিটাল স্টুডিও অ্যান্ড মাল্টিমিডিয়ার মালিক সুজন মিয়া (৩২)। .প্রতারক সুজন ছাত্রীদের উলঙ্গ ছবি তোলে তা ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে ওই সকল ছাত্রীদের অনৈতিক কার্যাকলাপে বাধ্য করছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ইতিমধ্যে অনেক ছাত্রীকে অনৈতিক সর্ম্পকে বাধ্য করে তার নগ্ন ছবি ও ভিডিও মোবাইল ফোন ও ইন্টারনেটের মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়া হয়েছে। লোক লজ্জার ভয়ে প্রতারণার শিকার এসব ছাত্রী ও তাদের অভিভাবকরা আইনের আশ্রয় নিচ্ছে না বলে জানা গেছে। এলাকাবাসী জানান, উপজেলার আনাইতারা ইউনিয়নের ফতেপুর গ্রামের আজগর আলীর ছেলে মো. সুজন মিয়া ফতেপুর বাজারে দীর্ঘ প্রায় ৬ বছর আগে সিয়াম ডিজিটাল স্টুডিও অ্যান্ড মাল্টিমিডিয়া নামে একটি দোকান দেয়। বছর দুয়েক আগে সে ওই দোকানে কম্পিউটার বসিয়ে এলাকার ছাত্র-ছাত্রীদের প্রশিক্ষণ দিতে থাকে। এরমধ্যে সে স্কুল ও কলেজ পড়ুয়া ছাত্রীদের অজান্তেই ছবি তুলে তা কম্পিউটারের সাহায্যে নগ্ন করে তা ছাত্রীদের দেখিয়ে তার সাথে অনৈতিক কার্যাকলাপ করতে বাধ্য করে। নিজের কার্যসিদ্ধি শেষে ওই অনৈতিক কার্যাকলাপের ছবি ও ভিডিও মোবাইল ফোন ও ইন্টারনেটের মাধ্যমে ছড়িয়ে দিচ্ছে। লোক লজ্জার ভয়ে প্রতারণার শিকার এসব ছাত্রী ও তাদের অভিভাবকরা আইনের আশ্রয় নিচ্ছেন না। কম্পিউটার প্রশিক্ষণের নামে ছাত্রীদের সঙ্গে অনৈতিক কার্যাকলাপের এ ঘটনাটি এলাকায় জানাজানি হলে প্রতারক সুজন বেশ কয়েক দিন যাবৎ দোকান বন্ধ রেখে গা ঢাকা দিয়েছে। বৃহস্পতিবার সরেজমিনে ওই বাজারে গিয়ে দেখা গেছে অনেকের মোবাইল ফোনে এলাকার ছাত্রীদের সঙ্গে প্রতারণা করে তোলা নগ্ন ছবির ভিডিও ফুটেজ। এসময় প্রতারক সুজন মিয়ার সিয়াম ডিজিটাল স্টুডিও অ্যান্ড মাল্টিমিডিয়া দোকান ঘর বন্ধ পাওয়া গেছে। তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটিও বন্ধ রয়েছে। তবে তার ছোট ভাই সুমন মিয়ার সঙ্গে কথা হলে তিনি এ ব্যাপারে কিছু জানেন না বলে দাবি করেন। এদিকে এ ঘটনায় ফতেপুর ও চামারী গ্রামের বাসিন্দা মুনছের মিয়া, সাইদ মাষ্টার, জয়েন উদ্দিন, খলিল মিয়া, মজুন ও আজগর মেম্বার প্রমুখরা প্রতারক সুজন মিয়াকে অবিলম্বে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন। আনাইতারা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবু হেনা মোস্তফা কামাল ময়নাল ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন বখাটে সুজনের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন। এ ব্যাপারে মির্জাপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শ্যামল কুমার দত্তের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন ঘটনাটি পুলিশের জানা নেই। তবে অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এইচ এন

Comments
Loading...