পরকীয়া প্রেমের অভিযোগে শ্রাবন্তির বিয়ে বিচ্ছেদ!

0 ১৮

srabটালিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী শ্রাবন্তি অবশেষে বিয়ে বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। অভিনেত্রী শ্রাবন্তি এবং চিত্র পরিচালক রাজীব বিশ্বাস তাদের দাম্পত্য জীবনে পর্দা নামানোর জন্য কোর্টে ডিভোর্সের জন্য অ্যাপিল করেছেন।
অভিনেত্রী শ্রাবন্তি ২০০৩ সালে প্রেম করে বিয়ে করেন চিত্র পরিচালক রাজিবকে। তাদের বর্তমানে একটি পুত্র সন্তান রয়েছে। নাম ঝিনুক। বিয়ের পরে বেশ কয়েক বছর এই অভিনেত্রীকে আর পর্দায় দেখা যায়নি।

বিবাহের বেশ একটা বড় সময় পর আবার শ্রাবন্তি নিজেই অভিনয় জগতে ফিরে আসেন। বর্তমানে টলিউডের গ্ল্যামারাস অভিনেত্রীদের মধ্যে শ্রাবন্তি অন্যতম। অভিনয়ে ফিরে আসার পরই তাদের দাম্পত্য জীবনে কালো ছাঁয়া নেমে আসে।
দীর্ঘদিন থেকে তাদেরকে নিয়ে নানা কানঘুষা আলাপ-আলোচনা চলে আসছিল। অবশেষে এই দম্পতি নিজেরাই তাদের এই বিবাহ বিচ্ছেদ এর ব্যাপারে মিডিয়ার সামনে মুখ খোলেন।
বিয়ে বিচ্ছেদ বিষয়ে রাজীব বলেন “অনেকদিন ধরে আমাদের মধ্যে বেশ কিছু বিষয় নিয়ে মনমালিন্য চলছিল, এবং যার জন্য আমরা আলাদা থাকা শুরু করেছিলাম এবং আমাদের বিয়ের যে এই পরিনতি হবে তা আমি অনেক আগে থেকেই জানতাম।”
পুত্র ঝিনুক এর ব্যাপারে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন “ঝিনুক বেশিরভাগ সময় ওর মায়ের কাছে থাকে, তবে মাঝে মাঝে ওকে আমি আমার কাছে নিয়ে আসি, তখন ওর মা কোন বাঁধা দেয় না।”

মিডিয়ার ফিরে আসার পর শ্রাবন্তিকে নিয়ে পরকীয়া প্রেমের অভিযোগ উঠতে থাকে। এ বিষয়ে শ্রাবন্তি মিডিয়ার কাছে বলেন “যদি আমার জীবনে একটি পুরুষ থাকে, তাহলে ওর জীবনে আছে দশটি নারি।”

শেষবার প্রায় দুই মাস আগে এই দম্পতিকে ভ্রমণের জন্য তাদের পুত্র ঝিনুক এর সঙ্গে দিঘাতে দেখা গিয়েছিল। শ্রাবন্তি নিজে ইন্ডাস্ট্রিতে একজন খুব মিস্টি স্বভাবের অভিনেত্রী হিসেবে পরিচিত। হটাৎ করে এই রকম পরিনতির কারনে তার নিজের এই স্বভাবে কোন পরিবর্তন আসে কিনা এখন সেটাই ইন্ডাস্ট্রির প্রধান আলোচ্য বিষয়।

Comments
Loading...