সন্তানের সামনেই মাকে রাতভর পালাক্রমে ধর্ষণ করেছে ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীরা

0 ১৪

Sexচাঁদপুর মতলব পৌরসভার পূর্ব কলাদী এলাকায় ৩০ বছরের এক নারী রাতভর  ছাত্রলীগ কর্তৃক গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন। এ ঘটনায় মঙ্গলবার দুপুরে ধর্ষণের শিকার ওই নারী মতলব দক্ষিণ থানায় বাদী হয়ে নারী শিশু নির্যাতন ৯ এর ৩ ধারায় ৫ জনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেছে।

সোমবার ধর্ষণের শিকার ওই নারীর স্বামী মো. হোসেন একটি মামলায় গ্রেপ্তার হলে তাকে জামিন করাতে মতলব উত্তরের রানা নামের তার এক আত্মীয় ৩৭ হাজার টাকা নিয়ে মতলব কলাদী গ্রামের ওই নারীর বাড়িতে যায়। এ খবর পেয়ে সোমবার রাত ৯টায় ছাত্রলীগের ওই ৫ নেতা ওই নারীর ঘরে জোরপূর্বক প্রবেশ করে। এ সময় তারা ঘরের ভেতর ঢুকে প্রথমে ওই নারীর সাড়ে ৪ বছরের একটি ছেলে সন্তান, শাশুড়ী ও ছোট ভাইকে ঘরের ভেতর অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে জিম্মি করে ফেলে। পরে তারা রানার কাছ থেকে ৩৭ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয় এবং রানাকে এবং ওই নারীকে অশ্লীলভাবে নগ্ন করে ছবি তুলে মারধর করে। পরে রাতভর ওই ৫ জনের মধ্যে ৩ জন পালাক্রমে ওই নারীকে ধর্ষণ করে। বাকি দুজন এতে সহায়তা করে। ভোরে ধর্ষণকারীরা রানাকে আরো টাকা দিতে হবে দাবি করে ভয়ভীতি দেখালে রানা টাকা আনার কথা বলে বের হয়ে বিষয়টি মতলব থানা পুলিশকে জানায়। পরে পুলিশ কৌশলে মঙ্গলবার দুপুরে অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতা, মতলব দক্ষিণ উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক হোসাইন মো. কচি (৩০) কচিকে গ্রেপ্তার করে। অন্যরাও সকলেই ছাত্রলীগের নেতৃস্থানীয়। অন্যরা হলো ছাত্রলীগ নেতা পট্টি বাবু, লাল শরিফ, তৌশিক ও জামাল প্রধানিয়া। এই ৪ জন পলাতক রয়েছে।

মতলব দক্ষিণ থানার ওসি জাহাঙ্গীর আলম বলেন, মঙ্গলবার দুপুরে থানায় মামলা হলে পুলিশ অভিযান চালিয়ে কচিকে গ্রেপ্তার করে। তিনি জানান, অন্য আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে এবং ধর্ষণের শিকার নারীর ডাক্তারি পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। এদিকে, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তারকৃত কচি দোষ স্বীকার করেছেন।

Comments
Loading...