আমেরিকার ‘সেরা চাকরিতে’ কোটি টাকা বেতন, পদ খালি ১০ হাজার

0 ৬২

মানুষ সাধারণত এমন চাকরি খোঁজে যেখানে বেতন মূল্যস্ফীতির সঙ্গে মানানসই, কাজের চাপ ব্যক্তিজীবনে ততটা প্রভাব ফেলে না, সর্বোপরি খুশি থাকা যায়। কিন্তু পৃথিবীতে এমন চাকরি কি আসলেই আছে যেখানে একসঙ্গে সব পাওয়া যায়- ছয় অংকের বেতন, আনন্দময় কর্মক্ষেত্র, যথেষ্ট চাকরির সুযোগ? এর উত্তর নিয়ে নানা জনে নানা মত থাকলেও বিভিন্ন কাজের তুলনা করে তাদের মধ্যে ‘সেরা চাকরি’ নির্ণয় করেছে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক ক্যারিয়ার বিষয়ক ওয়েবসাইট গ্লাসডোর।

যুক্তরাষ্ট্রের সেরা চাকরি

ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানগুলো সাধারণত দক্ষতা বাড়াতে এবং গ্রাহকদের সম্পর্কে আরও জানতে যাবতীয় তথ্য ব্যবহারে আগ্রহী। এ কারণে তাদের কাছে কম্পিউটার বিজ্ঞানীদের চাহিদা ব্যাপক। দূরে বসে কাজ করার সুবিধা থাকা পেশাগুলোর মধ্যেও এটি অন্যতম।

গ্লাসডোরের হিসাবে ‘আমেরিকার সেরা ৫০ চাকরি’র মধ্যে এক নম্বরে জায়গা করে নিয়েছে জাভা ডেভেলপার। এই পেশার লোকেরা সাধারণত বিভিন্ন স্টার্টআপে ওয়েব অ্যাপ্লিকেশন তৈরির কাজ করেন।

যুক্তরাষ্ট্রে জাভা ডেভেলপারদের বেতনের সীমা বছরে ৬৯ হাজার মার্কিন ডলার থেকে ১ লাখ ২৫ হাজার ডলার, বাংলাদেশি মুদ্রায় যার পরিমাণ ৫৯ লাখ থেকে ১ কোটি ৭ লাখ টাকার বেশি। তাদের বার্ষিক গড় মূল বেতন ৯৩ হাজার ডলারের বেশি।

জব রেটিংয়েও জাভা ডেভেলপারদের অবস্থান বেশ ভালো, এতে ৫-এর মধ্যে তারা পেয়েছে ৪ দশমিক ২ পয়েন্ট। যুক্তরাষ্ট্রে বর্তমানে এই চাকরিতে আনুমানিক ১০ হাজার ১০৩টি পদ খালি রয়েছে।

জাভা ডেভেলপারদের সাধারণত পেশাদার আইটি সার্টিফিকেশনসহ কম্পিউটার বিজ্ঞানে স্নাতক ডিগ্রি থাকতে হয়। এছাড়া এক্সপার্ট লেভেলে জাভা প্রোগ্রামিং, ডেটাবেস ম্যানেজমেন্ট এবং কম্পিউটার আর্কিটেকচারেও অভিজ্ঞতা লাগবে।

দুইয়ে ডেটা বিজ্ঞানী

যুক্তরাষ্ট্রে সেরা চাকরির তালিকায় জাভা ডেভেলপারদের পরেই রয়েছে ডেটা বিজ্ঞানী। তাদের গড় বার্ষিক মূল বেতন ১ লাখ ১৩ হাজার ডলার বা ৯৭ লাখ ৮৯ হাজার টাকা।

তিনে রয়েছে প্রোডাক্ট ম্যানেজার। এই পদে গড় বার্ষিক মূল বেতন ১ লাখ ২১ হাজার ডলার বা ১ কোটি ৪ লাখ টাকা। চারে এন্টারপ্রাইজ আর্কিটেক্ট (গড় বার্ষিক মূল বেতন ১ লাখ ৩১ হাজার ডলার) এবং পাঁচে রয়েছে ডেভঅপ ইঞ্জিনিয়ার (গড় বার্ষিক মূল বেতন ১ লাখ ১০ হাজার ডলার)।

ডেটা বিজ্ঞানী ও সফ্টওয়্যার ডেভেলপাররা সাধারণত পাইথন, আর, এসকিউএল, হাডুপ এবং সুপরিচিত জাভার প্রোগ্রামিং ভাষা ব্যবহার করেন। প্রোডাক্ট ম্যানেজাররা কোনো পণ্য বা পণ্য শ্রেণির কৌশল এবং ব্লুপ্রিন্ট তৈরি করেন। একটি প্রতিষ্ঠানের গোটা আইটি অবকাঠামোর দায়িত্ব এন্টারপ্রাইজ আর্কিটেক্টের। ডেভঅপ ইঞ্জিনিয়ার ইঞ্জিনিয়ারিং এবং কোডিং উভয় ক্ষেত্রে দক্ষ। তারা সফটওয়্যার তৈরি ও ব্যবহারের পাশাপাশি গোটা সিস্টেমের উন্নয়নে কাজ করেন।

ক্যারিয়ার পরামর্শকদের মতে, সব শিল্পেই কম্পিউটার বিজ্ঞানীদের উচ্চ চাহিদা রয়েছে। বিশেষ করে সিলিকন ভ্যালি কোম্পানিতে; যেমন- মেটা, অ্যালফাবেট, মাইক্রোসফট প্রভৃতি।

সেরা চাকরি নির্ণয় পদ্ধতি

‘গ্লাসডোর জব স্কোর’ নির্ধারণ হয়েছে মূলত তিনটি বিষয়ের ওপর ভিত্তি করে: আয়ের সম্ভাবনা (বার্ষিক গড় মূল বেতন), কাজে সন্তুষ্টির রেটিং এবং চাকরির সুযোগ। সি-স্যুট এবং ইন্টার্ন লেভেলের চাকরিগুলো বাদ দেওয়া হয়েছে প্রতিবেদন থেকে।

অবশ্য ইউএস নিউজ অ্যান্ড ওয়ার্ল্ড রিপোর্টের পৃথক প্রতিবেদনে কম্পিউটার বিজ্ঞানীদের সঙ্গে ফিজিশিয়ান অ্যাসিসট্যান্টদের জোর প্রতিযোগিতা হয়েছে। ওই তালিকায় এক নম্বরে জায়গা করে নিয়েছেন ফিজিশিয়ান অ্যাসিসট্যান্টরাই। তাদের গড় বেতন ১ লাখ ১২ হাজার ডলার এবং প্রারম্ভিক বেতন ৩৯ হাজার ৩০০ ডলার। তালিকায় সফটওয়্যার ডেভেলপাররা রয়েছেন দুই নম্বরে।

সূত্র: মার্কেট ওয়াচ

Comments
Loading...