জার্মানিতে লকডাউন বাড়ল ২৮ মার্চ পর্যন্ত

0 ১০৬

করোনা প্রতিরোধে জার্মানিতে ২৮ মার্চ পর্যন্ত লকডাউনের সময়সীমা বাড়িয়েছে মার্কেল প্রশাসন। তবে দেশটিতে টিকা বণ্টনের ফলে সংক্রমণের সংখ্যা কমে আসায় বিধিনিষেধের কড়াকড়িতে আনা হয়েছে শিথিলতা।

ইউরোপের অন্যান্য দেশের মতো গত বছরের ডিসেম্বর থেকেই লকডাউনের কড়াকড়িতে দিন পার করছে জার্মানি। প্রায় প্রতিদিনই দেশটির ১৬টি অঙ্গরাজ্যের কোথাও না কোথাও হানা দিচ্ছে ব্রিটেন, দক্ষিণ আফ্রিকা ও ব্রাজিলের করোনার নতুন ধরন। তাই চলতি মাসের ৭ মার্চ পর্যন্ত দেয়া করোনার লকডাউনের সময়সীমা বাড়ানো হয়েছে ২৮ মার্চ পর্যন্ত।

তবে সংক্রমণ পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হওয়ায় লকডাউনের বিধিনিয়মে আনা হয়েছে কিছুটা শিথিলতা। খুলে দেয়া হয়েছে গ্রন্থাগার, বই পুস্তকের দোকান, নার্সারি বা গাছের চারা বিক্রির দোকান ও চুল কাটার সেলুন। মার্কেল সরকারের এমন সিদ্ধান্তে খুশি সংশ্লিষ্ট সবাই।

বইয়ে দোকানে আসা এক নারী জানান, আমরা অনেক খুশি যে দীর্ঘদিন পর অবশেষে বইয়ের দোকান খুলে দেওয়া হয়েছে। করোনার এই লকডাউনে বই হচ্ছে সবচেয়ে প্রিয় বন্ধু। ভালো লাগছে যে এখন থেকে যে কেউ যে কোনো বই সংগ্রহ করতে পারবেন। বাচ্চারাও তাদের মজার বই পুস্তক ছাড়াও স্কুলের বিভিন্ন সামগ্রী নিতে পারবে। তবে অবশ্যই করোনার বিধি নিয়ম মেনে চলতে হবে।

সেলুনে আসারা বলেন, দেখুন করোনা পরিস্থিতি কিছুটা ভালো হওয়ায় ১ মার্চ থেকে জার্মানির সেলুনগুলো খুলে দেয়ার সরকারের সিদ্ধান্ত সঠিক বলে মনে করছি। এখন থেকে অন্তত সবাই চুল কাটতে আসতে পারবে। গত ডিসেম্বর থেকে ঘরবন্দি মানুষ অন্তত মাথাটাকে হালকা করার সুযোগ পাচ্ছে, এইবা কম কিসে। চুল কাটাতে পেরে আমরাও খুশি।

তবে শিথিলতার অংশ হিসেবে দুজনের বদলে ৫ জন এক হতে পারলেও সামাজিক অনুষ্ঠানের অনুমোদন দেয়নি মার্কেল প্রশাসন। বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন টিকা প্রদানের জটিলতা কাটাতে দেশটির সাধারণ চিকিৎসকদের চেম্বারে টিকা প্রদান কার্যক্রম চালু করার পাশাপাশি বিনামূল্যে পরীক্ষার সুবিধা রাখলে করোনাকে ধীরে ধীরে বশে আনা সম্ভব হবে।

Comments
Loading...