ঠিক কাজই করেছি : ‘বুল্লি বাই’ অ্যাপ নির্মাতার সাফাই

0 ২০

মুসলিম নারীদের ছবি দিয়ে তাদের ‘বিক্রি’ করা হচ্ছে, এমন বিজ্ঞাপন দেয়া ‘বুল্লি বাই’ অ্যাপ বন্ধের পর এবার এর নির্মাতাকেও গ্রেফতার করা হয়েছে। ভারতের আসাম থেকে নীরাজ বিষ্ণোই নামের ওই অভিযুক্ত অ্যাপ নির্মাতাকে গ্রেফতার করা হয়। যতিও ওই নির্মাতা কোনো ভুল করেননি বলে নিজের পক্ষে সাফাই গেয়েছেন। খবর এনডিটিভির।

জানা গেছে, অ্যাপটির ডেভেলপার এবং যিনি এর টুইটার হ্যান্ডেলে ছবি ও বিষয়বস্তু শেয়ারের দায়িত্বে রয়েছেন, তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হয়েছে মামলায়। বুল্লি বাই নামে এই অ্যাপটি একটি ওপেন সোর্স অ্যাপ, যা গিটহাব নামে একটি ওয়েব প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে অপারেট করত। মামলা হওয়ার পর গিটহাব কর্তৃপক্ষ এর কন্টেন্ট নামিয়ে দিয়েছে। গত কয়েক মাসের মধ্যে ভারতে মুসলমান নারীদের অনলাইনে ‘নিলাম’ বা ‘বিক্রি’র মত হয়রানিমূলক কর্মকাণ্ডের এটি দ্বিতীয় ঘটনা।

সর্বশেষ অ্যাপটির মাধ্যমে ১০০ জনের বেশি মুসলমান নারীর ছবি আপলোড দিয়ে তাদের ‘বিক্রি’ করা হচ্ছে, এমন বিজ্ঞাপন দেয়ার পর দেশটির দুইটি রাজ্যের পুলিশ ওই অ্যাপের নির্মাতাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে। দিল্লি পুলিশের বিশেষ শাখা আইএফএসওর উপপুলিশ কমিশনার কে পি এস মলহোত্রা জানান, বুল্লি বাই অ্যাপটি বানিয়েছেন নীরাজ বিষ্ণোই নামের এক ব্যক্তি। তাকে আইএফএসওর একটি দল আসাম থেকে গ্রেফতার করেছে। তিনি গিটহাবের বুল্লি বাই অ্যাপের মূলহোতা ও নির্মাতা এবং অ্যাপটির প্রধান অ্যাকাউন্টধারী।

জানা যায়, বিষ্ণোই ভোপালের একটি প্রতিষ্ঠানের ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। তাকে দিল্লিতে নেওয়া হচ্ছে। এ নিয়ে এ মামলায় চারজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। আগের তিনজনকে মুম্বাই পুলিশের সাইবার টিম গ্রেফতার করেছে। তারা হলেন মৈনাক রাওয়াল (২১) শ্বেতা সিং (১৯) এবং ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ছাত্র বিশাল কুমার। মুম্বাই পুলিশ বলছে, শ্বেতা সিং এ চক্রের মূলহোতা।

বিডি-প্রতিদিন

Comments
Loading...