ফিলিস্তিনি মানবাধিকার গ্রুপ নিয়ে হলিউড অভিনেতা-পরিচালকদের খোলা চিঠি

0 ১২

হলিউডের অভিনেতা, চলচ্চিত্র পরিচালক, লেখক ও শিল্পীরা ফিলিস্তিনি মানবাধিকার গ্রুপের ওপর ইসরাইলের সন্ত্রাসী তকমার নিন্দা জানিয়েছেন। এক খোলা চিঠিতে তারা এই ঘটনাকে মানবাধিকারের ওপর নজিরবিহীন বর্বর আক্রমণ হিসেবে উল্লেখ করেছেন।

খোলা চিঠিতে হলিউঠের অভিনেতা-পরিচালকরা বলেন, ফিলিস্তিনের ৬টি সংগঠন যাতে বর্ণবাদী ইসরাইলের মানবাধিকার লঙ্ঘন ও ফিলিস্তিনিদের প্রতি প্রাতিষ্ঠানিক বৈষম্যের বিরুদ্ধে ইসরাইলকে জবাবদিহি করাতে না পারে, সে কারণে তাদেরকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

চিঠিতে যেসব তারকারা স্বাক্ষর করেছেন তাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্যরা হলেন- রিচার্ড গ্রে, মার্ক রাফেলো, টিডডা সুউনটন, সুসান সারানডোন ও সিমন পেগ।

গত মাসে ফিলিস্তিনের ৬ মানবাধিকার গ্রুপকে ‘সন্ত্রাসী সংগঠন’ তকমা দেয় ইসরাইল। এ ছাড়া এসব সংগঠনের বিরুদ্ধে জঙ্গিদের সহযোগিতার অভিযোগ তোলে দেশটি।

ইসরাইলের এ পদক্ষেপের সমালোচনা করে জাতিসংঘ ও মানবাধিকার পর্যবেক্ষক সংস্থাগুলো।

ইসরাইলের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় দাবি করে, যেসব গ্রুপের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে, সেগুলোর সঙ্গে পপুলার ফ্রন্ট ফর দ্য লিবারেশন অব প্যালেস্টাইনের (পিএলএফপি) সম্পর্ক রয়েছে। পিএলএফপির বিরুদ্ধে ইসরাইলে বিরুদ্ধে সশস্ত্র হামলার অভিযোগ রয়েছে।

ইসরাইলের চোখে সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে তকমা পাওয়া সংগঠনগুলোর মধ্যে রয়েছে ফিলিস্তিনের মানবাধিকার সংগঠন আদ্দামির ও আল-হক। এ সংগঠনগুলো ইসরাইল এবং পশ্চিমা-সমর্থিত ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ পশ্চিম তীরে মানবাধিকার লঙ্ঘনের নথি সংগ্রহ করে।

ইসরাইলের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় আরও বলে যে, যেসব সংগঠনের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে, সেগুলো জালিয়াতি এবং প্রতারণা করে ইউরোপের বিভিন্ন দেশ ও আন্তর্জাতিক সংস্থা থেকে বড় অংশের অর্থ সহযোগিতা পায়। এই অর্থ পিএলএফপির কার্যক্রমকে সহযোগিতায় ব্যয় করা হয়।

হাল্ক খ্যাত অভিনেতা মার্ক রাফালো ফিলিস্তিনিদের ওপর ইসরাইলে বর্বর আক্রমণ নিয়ে বেশ সরব। ইসরায়েল-ফিলিস্তিন সংঘাত নিয়ে আগেও কথা বলেছেন তিনি।

গত বছর এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছিলেন, ‘ইসরায়েলের নীতিমালা ও কৌশল নিয়ে প্রশ্ন তোলা উচিত। যে কোনো রাষ্ট্রের তাদের সঙ্গে হাত মেলানোর আগে ভেবে দেখা উচিত।’

এছাড়া তিনি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি ইসরাইলের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপের জন্যও বলেন। তিনি বলেন, দক্ষিণ আফ্রিকার ওপর নিষেধাজ্ঞা কৃষ্ণাঙ্গদের মুক্ত হতে সহায়তা করেছে, ফিলিস্তিনিদের মুক্ত করতে ইসরাইলের ওপর নিষেধাজ্ঞা এখন সময়ের দাবি।

jugantor

Comments
Loading...