মঈন আলিকে নিয়ে বিতর্কিত সেই টুইটটি মুছে দিয়েছেন তসলিমা

0 ৮০

ইংলিশ ক্রিকেটার মঈন আলিকে নিয়ে করা সেই বিতর্কিত টুইটটি অবশেষে ডিলিটই করে দিতে বাধ্য হলেন তসলিমা নাসরিন। ৫ এপ্রিল তিনি মঈন আলিকে নিয়ে এক বিতর্কিত টুইট করে তুমুল সমালোচনার মুখে পড়েন। টুইটার ব্যবহারকারীরা তসলিমাকে রীতিমত ধুয়ে দিতে শুরু করেন। সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য দিক হলো, ইংল্যান্ডের ক্রিকেটাররা পর্যন্ত ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন এই ঘটনায়।

সবচেয়ে বেশি ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ছিল ইংলিশ পেসার জোফরা আর্চারের। তসলিমার সঙ্গে টুইটারে ঝগড়াই বাধিয়ে দেন তিনি। এক পর্যায়ে তসলিমাকে তিনি পরামর্শ দিয়েছিলেন টুইটটি মুছে (ডিলিট) ফেলতে। এছাড়া স্যাম বিলিংস, বেন ডাকেটসহ বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার তসলিমর অ্যাকাউন্টকে রিপোর্ট করার পরামর্শ দিয়ে টুইট করেছেন।

চারদিক থেকে যখন তুমুল সমালোচনার শিকার হচ্ছিলেন ভারতে নির্বাসিত বাংলাদেশের বিতর্কিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন, তখন টুইটার থেকে তার টুইটটি সরিয়ে ফেলেন তিনি। তবে, বিতর্কিত সেই টুইটকে ঘিরে অন্য যে টুইটগুলো করেছেন, সেগুলো মুছে দেননি। সেগুলো এখনও রয়েছে।

চেন্নাই সুপার কিংসের জার্সিতে একটি বিয়ারের ব্র্যান্ডের লোগো দেয়া। যে কারণে মঈন আলি আবেদন করেন, বিয়ারের লোগোটা তার জার্সি থেকে সরিয়ে দিতে। এ খবর আবার ফলাও করে প্রচার হয়েছে সংবাদ মাধ্যমে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটেও এই বিষয়টা মেনে চলেন ধর্মপ্রাণ মঈন আলি।এটা নিয়েই ইংলিশ এই ক্রিকেটারকে কটাক্ষ করলেন তসলিমা। সিরিয়ার আইএস জঙ্গীদের সঙ্গে তুলনা করলেন। লিখেছিলেন, ‘মঈন আলি যদি ক্রিকেটার না হতেন, তাহলে নিশ্চিত সিরিয়ায় গিয়ে আইএসের সঙ্গে যোগ দিতেন।’

এই টুইটের পরই একের পর সমালোচনার শিকার হয়ে শেষ পর্যন্ত তা মুছে দিতে বাধ্য হয়েছেন তসলিমা নাসরিন।

Comments
Loading...