শতরুপে তুমি শতরুপা, তুমি চিররহস্যময়ী, তুমি নারী

0 ৬৬

নারী- দুই বর্ণের অতি সাধারন একটি শব্দ। কিন্তু এই সাধারন শব্দটির মাঝেই লুকায়িত আছে জাগতিক এক অসাধারন রহস্য ও ভালবাসা। এই নারী কখনো একজন কন্যা, একজন বোন, একজন স্ত্রী, একজন মা আবার কখনোবা একজন উপার্জনশীল ব্যক্তি। কিন্তু এতোগুলো অসাধারন পরিচয়ের মাঝে তার প্রকৃত পরিচয়টি কোনটি?

শাহরিন মনজুর, পৃথিবীতে আগমনের সাথে সাথে তার প্রথম পরিচয় ‘শাহজাহান আকবর ও খালেদা আকবর’ দম্পতির কন্যা হিসেবে। কিছুদিন পর তিনি কন্যা পরিচয়ের পাশাপাশি হয়ে উঠলেন একজন মমতাময়ী বোন। সময়ের পরিক্রমায়, জাগতিক নিয়মে তিনি একদিন হলেন কারো স্ত্রী। তারপর আগমন ঘটলো তার জীবনের সবচেয়ে মাহেন্দ্রক্ষণের, তিনি পেলেন মাতৃত্বের স্বর্গীয় স্বাদ। কিন্তু এখানেই কি তার থেমে থাকা…।

জগতের সবচেয়ে মর্যাদাপূর্ণ দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি তিনি পালন করছেন আরও একটি মহান দায়িত্ব। কেননা তিনি যে হাতে নিয়েছেন দেশের ভবিষ্যৎ গড়ার মত কঠিনতম কাজটি। বর্তমানে তিনি ঢাকার অন্যতম স্বনামধন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান “প্রিমিয়ার স্কুল ঢাকা” তে একজন শিক্ষক হিসেবে শিক্ষাদান করছেন।

শাহরিন মনজুর একজন কন্যা, ভগিনী, রমণী ও জননী। কিন্তু এতো পরিচয়ের ভিড়ে কোনটি তার প্রকৃত পরিচয়! তার প্রকৃত পরিচয় তিনি একজন নারী। যিনি তার পরিবার ও সন্তানের হাসির জন্য ভুলে যান তার সারা দিনের সকল বাস্ততা ও ক্লান্তি। যিনি সকল হতাশা ভুলে, মুখে একটুকরো হাসি নিয়ে তার শিক্ষার্থীদের দেখান আশার আলো। যেই হাসির মাঝে লুকায়িত এক অব্যক্ত রহস্য। তাইতো তুমি শতরুপে, শতরুপা, চিররহস্যময়ী, তুমি নারী।

Comments
Loading...