এবি পার্টির সম্মেলনে আ.লীগ নেতাকর্মীদের হামলা

0 ১৭

ফেনীর সোনাগাজীতে এবি (আমার বাংলাদেশ) পার্টির উপজেলা সম্মেলনে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের হামলার অভিযোগ উঠেছে। এ সময় এবি পার্টির ৬ নেতাকর্মী আহত হয়েছেন।

আহতরা হলেন- এবি পার্টির সোনাগাজী উপজেলা সমন্বয়ক ওয়াসিউর রহমান খসরু, ফুলগাজী উপজেলার সমন্বয়ক ফজলুল হক, মো. পারভেজ, মো. ইসমাইল হোসেন, ফেনী সদর উপজেলা সমন্বয়ক মোজাম্মেল হোসেন ও মোহাম্মদ লিটন। আহতদের ফেনী জেনারেল হাসপাতাল ও সোনাগাজী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

দলীয় নেতাকর্মীরা অভিযোগ করে জানান, শনিবার বিকাল ৩টা থেকে ডাকবাংলা কমিউনিটি সেন্টারে এবি পার্টি সোনাগাজী উপজেলা কমিটির সম্মেলন আয়োজন করা হয়।

সম্মেলনে পার্টির কেন্দ্রীয় চেয়ারম্যান সোলায়মান চৌধুরী প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকার কথা ছিল।

বিকাল ৩টার দিকে সিএনজি অটোরিকশাযোগে ৬ জন নেতাকর্মী ডাকবাংলা কমিউনিটি সেন্টারের সামনে পৌঁছলে স্থানীয় ২০-২৫ জন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী লোহার রড ও লাঠিসোটা নিয়ে এবি পার্টির নেতাকর্মীদের ওপর অতর্কিত হামলা করে এবং তাদের বহনকারী সিএনজি অটোরিকশাটি ভাংচুর করে। এতে উপজেলা সম্মেলন পণ্ড হয়ে যায়। আর নেতাকর্মীদের ওপর হামলার খবর শুনে ফেনী থেকে ফেরত চলে যান পার্টির চেয়ারম্যান সোলায়মান চৌধুরী।

এ হামলার জন্য এবি পার্টির ফেনী জেলা আহবায়ক ডা. সামছুদ্দিন ও সদস্য সচিব ইঞ্জিনিয়ার শাহ আলম বাদল মঙ্গলকান্দি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন বাদলকে দায়ী করে বলেন, তার নির্দেশে স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা পরিকল্পিতভাবে হামলা চালিয়ে এবি পার্টির সম্মেলন পণ্ড করে দিয়েছে।

মঙ্গলকান্দি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন বাদল হামলায় জড়িত থাকার বিষয়ে অস্বীকার করে বলেন, ২০০১ সাল পরবর্তী সময়ে ফেনীর ডিসি থাকা অবস্থায় সোলায়মান চৌধুরী আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের ওপর যে স্টিমরোলার চালিয়েছিলেন সেই ক্ষোভে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা এবি পার্টির নেতাকর্মীদের ওপর হামলা চালানো স্বাভাবিক। তবে সোলায়মান চৌধুরী যেহেতু এক সময় জামায়াত করতেন, সেহেতু জামায়াতের নেতাকর্মীরা হামলা চালিয়েছে কিনা খতিয়ে দেখা দরকার।

সোনাগাজী মডেল থানার ওসি (তদন্ত) আবদুর রহিম সরকার বলেন, এবি পার্টি সম্মেলনের ব্যাপারে থানা পুলিশকে অবহিত করেনি। হামলার খবর শুনে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করে।

উৎসঃ   যুগান্তর
Comments
Loading...