প্রতারণায় অভিযুক্ত ব্যাংকের দূত কোহলি!

0

দক্ষিণ আফ্রিকায় ভারতীয় ক্রিকেট দলকে নিয়ে ভালো সময় কাটাচ্ছেন বিরাট কোহলি। ওয়ানডে সিরিজ জয়ের পর টি-টোয়েন্টি সিরিজ জয়ের পথেই ছিলেন। তবে দ্বিতীয় ম্যাচটি হেরে যাওয়ায় সিরিজ জয়ী নির্ধারিত হবে শনিবার সিরিজের তৃতীয় ও শেষ টি-টোয়েন্টিতে। কোহলি যখন দলের রণকৌশল সাজাতে ব্যস্ত তখন ভারতে কেলেঙ্কারী ঘটিয়ে ফেলেছে পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাংক (পিএনবি)।

ব্যাংকটির বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে ১১ হাজার ৪০০ কোটি রুপির দুর্নীতির। কিন্তু প্রশ্ন জাগতেই পারে, কোহলির সঙ্গে এই ব্যাংকের নাম আসছে কেন? কারণ, ভারতীয় অধিনায়ক যে পিএনবির দূত তথা ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর!

বেশ কয়েক দিন ধরেই ভারতে পিএনবির অর্থ কেলেঙ্কারী নিয়ে সরগরম অবস্থা চলছে। শোনা যাচ্ছে, হীরা ব্যবসায়ী নিরব মোদি ও তার সহযোগীরা মিলে ব্যাংকটির ১১ হাজার ৪০০ কোটি রুপি আত্মসাৎ করেছে। এজন্য প্রতিষ্ঠানটি ‘প্রাইস ওয়াটার হাউস কুপারস (পিডব্লিউসি)’ নামে একটি অডিট সংস্থাকে দায়িত্ব দিয়েছে এই কেলেঙ্কারীর তদন্ত করতে। আর এত কিছুর পর কোহলি ব্যাংকটির দূতিয়ালি করে যেতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন।

তবে শুক্রবার মুখ খুলেছে পিএনবি। এক অফিসিয়াল বিজ্ঞপ্তিতে তারা জানিয়েছে কোহলি এখনও প্রতিষ্ঠানটির সঙ্গে আছেন, ‘সংবাদমাধ্যমে খবর দেখা যাচ্ছে ব্যাংকের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর বিরাট কোহলি পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাংকের সঙ্গে তার চুক্তি বাতিল করছেন। এটা সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ভুল। বিরাট কোহলি আমাদের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর।’

এছাড়া পিএনবি এত বিশাল অঙ্কের অর্থ কেলেঙ্কারী ও অডিট প্রতিষ্ঠানের তদন্তের খবরও অস্বীকার করেছে। তবে এ বিষয়ে বিরাট কোহলি এখনও কোনো মন্তব্য করেননি। ওয়েবসাইট।

Comments
Loading...