অবশেষে ‘আমার সোনার বাংলা’র রেকর্ড

0 ১১

record-intro-311x186অবশেষে একসাথে বেশিসংখ্যক মানুষ জাতীয় সঙ্গীত গাওয়ার রেকর্ডটি বাংলাদেশের হলো। কিছুক্ষণ আগে গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড কর্তৃপক্ষ বাংলাদেশের করা রেকর্ডটি তাদের নথিভূক্ত করেছে। গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড-এর ওয়েবসাইটেও এটি প্রকাশ করা হয়েছে।

গিনেস কর্তৃপক্ষ জানায়, বাংলাদেশ সরকারের সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে ২ লক্ষ ৫৪ হাজার ৫৩৭ জন মানুষ একসাথে দেশের জাতীয় সঙ্গীত গেয়ে বিশ্বরেকর্ড গড়েছে। ২৬ মার্চ, ২০১৪-এ বাংলাদেশের জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ডে এই রেকর্ড গড়া হয়।

অবশ্য এর ১৭ ঘণ্টা আগেই গিনেস কর্তৃপক্ষ এক বিবৃতিতে জানিয়েছিল, বাংলাদেশের করা রেকর্ড সম্পর্কে তাদের কাছে কোনো তথ্য-প্রমাণ পৌঁছেনি।

আবেদনসহ কোনো প্রমাণ পায়নি উল্লেখ করে গিনেস জানায়, “একসাথে সম্মিলিতভাবে বেশি মানুষ জাতীয় সংগীত গাওয়ার তাদের রেকর্ড গড়ার যে দাবি তার প্রমাণপত্র পাওয়ার জন্য আমরা বর্তমানে অপেক্ষায় আছি। আমরা রেকর্ডটির প্রমাণ গ্রহণের জন্য মুখিয়ে আছি।”

এর আগে ৭ এপ্রিল সোমবার সন্ধ্যা ৭ টায়  দিবারতা.কম-এর পক্ষ থেকে গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করা হয়।

রাত ১০ টার দিকে ফিরতি এক বার্তায় গিনেসের কমিউনিটি ম্যানেজার ড্যান ব্যারেট জানান, এখন পর্যন্ত গিনেস কর্তৃপক্ষ বাংলাদেশের কাছ থেকে রেকর্ডের ব্যাপারে কোনো প্রমাণপত্র পায়নি।

ড্যান ব্যারেট বলেন, “আমরা এখনও ইভেন্ট আয়োজকদের পক্ষ থেকে সম্প্রতি করা বাংলাদেশের রেকর্ড সম্পর্কে প্রমাণ-পত্রের অপেক্ষায় আছি।”

প্রসঙ্গত, এর আগে গিনেস বুকে একসাথে বেশি মানুষ জাতীয় সংগীত গাওয়ার রেকর্ডটি ছিল ভারতের দখলে। ২০১৩ সালের ৬ মে ভারতের লখনৌতে তাদের জাতীয় সংগীত গাওয়ার অনুষ্ঠানটি হয়েছিল।

Comments
Loading...