আজ আন্তর্জাতিক নারী দিবস

0 ১৩

woman1আজ ৮ মার্চ আন্তর্জাতিক নারী দিবস। এই দিবসটি উদযাপনের পেছনে রয়েছে নারী শ্রমিকের অধিকার আদায়ের সংগ্রামের ইতিহাস।

দৈনিক ১২ ঘণ্টা শ্রম ও নিম্ন মজুরির প্রতিবাদে ১৮৫৭ খ্রিস্টাব্দে মজুরিবৈষম্য, কর্মঘণ্টা নির্দিষ্ট করা, কাজের অমানবিক পরিবেশের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের রাস্তায় নেমেছিলেন সুতা কারখানার নারী শ্রমিকেরা। সেই মিছিলে চলে সরকার বাহিনীর দমন-পীড়ন।

১৯০৮ খ্রিস্টাব্দে নিউইয়র্কের সোশ্যাল ডেমোক্র্যাট নারী সংগঠনের পক্ষ থেকে আয়োজিত নারী সমাবেশে জার্মান সমাজতান্ত্রিক নেত্রী ক্লারা জেটকিনের নেতৃত্বে (ক্লারা যিনি ছিলেন জার্মান রাজনীতিবিদ এবং জার্মান কমিউনিস্ট পাটির্র স্থপতিদের একজন) সর্ব প্রথম আন্তর্জাতিক নারী সম্মেলন হয়।

এবারের নারী দিবসের প্রতিপাদ্য বিষয় ‘নারী প্রগতি রাষ্ট্র সমাজ প্রগতি।
দেশে দেশে শ্রমিক শ্রেণী এই দিবসে পুঁজিবাদ-সাম্রাজ্যবাদের শৃখল ভাঙ্গার শপথ নেবে। শপথ নেবে মজুরী দাসত্ব থেকে মুক্তির, পুঁজি ও সম্পত্তির উপর ব্যক্তিগত মালিকানা উচ্ছেদের। এই দিবস পালনের মধ্য দিয়ে সারা দুনিয়ার শ্রমিক নারীরা ঐক্যবদ্ধ হবেন ও শোষণমূলক ব্যবস্থা উচ্ছেদ করে সমাজতন্ত্র প্রতিষ্ঠার সংগ্রাম বেগবান করবে নারীরা।

বিশ্বে প্রথম ‘জাতীয় নারী দিবস’ পালিত হয় আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রে ১৯০৯ সালের ২৮শে ফেব্রুয়ারি , আমেরিকার সমাজতান্ত্রিক পার্টির উদ্যোগে । ১৯১০এর আগষ্ট মাসে কোপেনহেগেন শহরে সমাজতান্ত্রিক পার্টিগুলির ২য় আন্তর্জাতিকে জার্মানীর সমাজতান্ত্রিক পার্টি প্রথম অ আন্তর্জাতিক নারী দিবসের প্রস্তাব করে । সম্মেলনে উপস্থিত বিশ্বের ১৭টি দেশের ১০০জন প্রতিনিধি, নারীর সমানাধিকারের প্রশ্নে সোচ্চার হন ।

রের বছর ১৮ই মার্চ অষ্ট্রিয়া, জার্মানী, হাঙ্গেরি, সুইজারল্যান্ড, ডেনমার্ক প্রভৃতি দেশে দশ লক্ষাধিক মানুষ ঐদিন ‘নারীর সমানাধিকার’, ‘চাকুরীতে লিঙ্গভেদের অবসান’ এবং অন্যান্য দাবিতে সোচ্চার হয়েছিলেন ।

আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রে যথারীতি ফেব্রৃয়ারির শেষদিনে ‘নারী দিবস’ পালিত হতে থাকে ১৯০৯ সাল থেকেই। পূর্ব রাশিয়ায় প্রথম আন্তর্জাতিক নারী দিবস’ পালিত হয় ১৯১৩ সালে ফেব্রুয়ারি মাসের প্রথম রোববার লেনিন বলেছিলেন ‘নারী জাতি শৃঙ্খলিত হয়েছে সবচেয়ে আগে, তার শৃঙ্খল মুক্তি ঘটবে সবচেয়ে শেষে’। রুশ ১৯১৭’র ফেব্রুয়ারির শেষ রবিবার সেন্টস পিটসবার্গে মহিলাদের যে প্রতিবাদ সমাবেশ হয় নানান দাবিতে, তা ফেব্রুয়ারিতে মর্যাদা পেয়েছিল। জর্জিয়ান ক্যালেন্ডার অনুসারে সেই দিনটি ছিল ৮ মার্চ । ১৯১৭’র পর থেকে সমাজতান্ত্রিক দেশগুলিতে ৮ মার্চ দিনটি আন্তর্জাতিক নারী দিবস’ রূপে পালিত হতে শুরু করে । অবশেষে রাষ্ট্র সঙ্ঘের সাধারণ পরিষদ ১৯৭৭এ আহ্বান জানান, প্রতি বছর ৮ মার্চ দিনটিকে নারীজাতীর স্বাধিকার রক্ষার দিন হিসাবে পালন করার ।

Comments
Loading...