আহমদ শফী এরশাদকে বদ দোয়া করেছেন!

0 ২০

53704দিবার্তা.কম

হেফজতে ইসলামের প্রধান শাহ আহমদ শফীর জতীয় পর্টির (জাপা) চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে বদ দোয়া করেছেন বলে জানিয়েছেন বিতর্কিত এ সংগঠনটির মহাসচিব জুনায়েদ বাবুনগরী। এরশাদের মুখে ইসলামের কথা চতুরতার অংশ বলে মন্তব্য করে তিনি বলেন, জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান শাহ আহমদ শফীর দোয়া নয়, বরং বদ দোয়াই নিয়ে গেছেন। বন্দর নগরী চট্টগ্রামের হাটহাজারী গিয়ে হেফাজতে ইসলামের আমির শাহ আহমদ শফীর সাথে এরমাদের সাক্ষাতের ছয় দিন পর আজ শনিবার এক বিবৃতিতে তিনি এ মন্তব্য করেন।
সাবেক রাষ্ট্রপতি এরশাদের অতীতের ভূমিকার দিকে ইঙ্গিত করে বিবৃতিতে বাবুনগরী বলেন, শুরু থেকেই তিনি ক্ষমতায় যাওয়ার সিঁড়ি হিসেবেই ইসলামকে ব্যবহার করে আসছেন বলে অনেক ওলামায়ে কেরাম মত দিচ্ছেন। তিনি বলেন, ইসলামের পক্ষে বিভিন্ন ভূমিকার কথা বললেও বাস্তব জীবনে ধর্মীয় অনুশাসনের ছিটেফোঁটাও তার মধ্যে লক্ষ্য করা যায় না।
বাবুনগরী বলেন, ইসলাম ও মুসলমানদের পক্ষে বড় বড় কথা বলে এরশাদ সাহেব আলেম-ওলামা ও তৌহিদি জনতাকে ধোঁকা দিচ্ছেন। তার বর্তমান ভূমিকায় ওলামা-মাশায়েখ ও তৌহিদি জনতা ক্ষুব্ধ হয়ে আছে। সারাদেশে তার প্রতি গণধিক্কার চলছে। তিনি বলেন, এরশাদ তার স্বৈরাচারী শাসনামল থেকেই ক্ষমতা ও ভোগবাদিতার জন্য নানা ডিগবাজী দেখিয়ে এসেছেন। জনগণের বিশ্বাস ভঙ্গের করুণ পরিণতি থেকে তিনি রেহাই পাবেন না।
বাবুনগরী বলেন, হেফাজতের আমির মাঠে ময়দানে যারা ইসলামের পক্ষে কাজ করছেন, তাদের সাফল্য কামনা করে দোয়া করেছিলেন। তিনি বলেন, জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের বর্তমান রাজনৈতিক যে অবস্থান, তাতে এটা কখনোই তার জন্য দোয়া বলা যায় না, বরং বদ দোয়াই বলতে হয়।
প্রসঙ্গত গত ১৭ নভেম্বর হেফাজত আমির ও হাটহাজারী মাদ্রাসার মহাপরিচালক শফীর সঙ্গে দেখা করেন এরশাদ। এ সময় তিনি বলেন, আমি শুধু দোয়া নিতে এসেছিলাম, হুজুর দোয়া করেছেন। এ সময় ক্ষমতায় গেলে হেফাজতের বিতর্কিত ১৩ দফা বাস্তবায়নেরও আশ্বাস দেন তিনি।

Comments
Loading...