চার বছরের মধ্যে পদ্মা সেতু: প্রধানমন্ত্রী

0 ১২

ঢাকা: চলতি বছরের জুন/জুলাইয়ে শুরু হয়ে আগামী চার বছরের মধ্যে নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু নির্মাণ কাজ শেষ হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বুধবার দশম জাতীয় সংসদের দ্বিতীয় (বাজেট) অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রীর জন্য নির্ধারিত প্রশ্ন-উত্তর পর্বে সংসদ সদস্য মো. রুস্তত আলী ফরাজীর এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি এ তথ্য জানান।

image_84845_0প্রধানমন্ত্রী বলেন, “পদ্মায় মূল সেতুর নির্মাণ কাজের জন্য চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোং লি. কে আন্তর্জাতিক টেন্ডারের মাধ্যমে কাযাদেশ দেয়া হয়েছে। তারা ১২ হাজার ১৩৩ কোটি টাকার দর দাখিল করে। আমরা নিজস্ব অর্থায়নে চার বছরের মধ্যে এই সেতু নির্মান করব। আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ইশতেহার অনুযায়ী এ দেশের জনগণের বহুল প্রত্যাশিত ৬ দশমিক ১৫ কি.মি দীর্ঘ মূল সেতুর নির্মাণ কাজ এ বছরের জুন/জুলাই মাসে শুরু হবে ইনশাআল্লাহ।”

প্রধানমন্ত্রী বলেন, “পদ্মা সেতু নির্মাণে সময় লাগবে প্রায় চার বছর। সে অনুযায়ী ২০১৮ সালে এ সেতু দিয়ে যানবহন পারাপার করতে পারবে।”

পদ্মা সেতু প্রকল্পের কাজের অগ্রগতি সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রী সংসদকে বলেন, “নদীশাসন কাজের ঠিকাদার কারিগরি মূল্যায়ন সম্পন্ন হয়েছে। আর্থিক প্রস্তাব চাওয়া হয়েছে, যা দাখিলের সর্বশেষ সময় চলতি মাসের ১৯ তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। জাজিরা কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ডের নদীতীর প্রতিরক্ষামূলক কাজের ৯৮ ভাগ ভৌত অগ্রগতি হয়েছে। চারটি পুনর্বাসন এলাকায় সংযোগ সড়কসহ নির্মাণ কাজের ভৌত অগ্রগতি হয়েছে ৯৯ ভাগ। পুনর্বাসন এলাকায় ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য নির্মিত এক হাজার ৮৬৯টি প্লটের মধ্যে ৬৫০টি প্লট ইতিমধ্যে হস্তান্তর করা হয়েছে। মূল সেতু এবং নদীশাসন কাজের নির্মাণ কাজ তদারকির জন্য কনস্ট্রাকশন সুপারভিশন কনসালটেশন (সিএসসি) নিয়োগে তালিকাভুক্ত প্রতিষ্ঠানগুলোর নিকট হতে প্রাপ্ত প্রস্তাব মূল্যায়ন চলমান আছে।”

এছাড়া পদ্মা সেতু নির্মাণ কাজে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীকেও সম্পৃক্ত করা হয়েছে বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী।

Comments
Loading...