ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের নামে অস্ত্র মামলা, ১১ কলেজে ধর্মঘট

0 ২২

image_80478_0খুলনা: খুলনা মহানগর শাখার ছাত্রলীগ সভাপতি দেব দুলাল বাড়ইসহ নগর শাখার নেতাকর্মীদের নামে অস্ত্র মামলা দায়েরের প্রতিবাদে ১১টি কলেজে অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট চলছে।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে খুলনা সরকারি ব্রজলাল বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ (বিএল), সরকারি আজমখান কমর্স কলেজ, সরকারি সুন্দরবন কলেজ, সরকারি সিটি কলেজসহ ১১টি কলেজে এ অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট শুরু হয়। এ সময় এই ১১টি কলেজে শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও কর্মচারিরা বিক্ষোভ করেছেন।

তবে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের বোড পরিক্ষা এ ধমঘটের আওতামুক্ত থাকবে বলে জানা গেছে।

এর আগে বুধবার অভিযান চালিয়ে সরকারি আজমখান কমার্স কলেজ থেকে অগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করে পুলিশ। এরপর ওই দিনই খুলনা সদর থানায় মহানগর শাখার ছাত্রলীগ সভাপতি দেব দুলাল বাড়ইসহ নগর শাখার নেতাকর্মীদের নামে একটি অস্ত্র মামলা দায়ের করা হয়। খুলনা সদর থানার সাব ইনেসপেক্টর (এসআই) রাশেদ বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেছেন বলে জানা গেছে।

ছাত্রলীগের নগর শাখার সহ-সভাপতি অমিতাভ ঘোষ দিবার্তাকে বলেন, ‘এটা একটি নাটকীয় মামলা। এ মামলার সঙ্গে তারা সম্পৃক্ত নন। এ মামলা প্রত্যাহারের প্রতিবাদে তারা ধর্মঘট পালন করছেন। তাদের দাবি মানা না হলে তারা আরো কঠোর কর্মসূচিতে যাবেন।’

তবে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের বোড পরিক্ষা এ ধমঘটের আওতামুক্ত রাখা হয়েছে বলে জানান অমিতাভ ঘোষ।

খুলনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে দিবার্তাকে জানান,
বুধবার সরকারি আজমখান কমর্স কলেজ এসআই রাশেদের নেতৃত্বে একটি দল অভিযান চালায়। এসময় ওই কলেজ থেকে অগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করা হয়।

এর পরিপ্রেক্ষিতেই খুলনা সদর থানায় মহানগর শাখার ছাত্রলীগ সভাপতি দেব দুলাল বাড়ইসহ নগর শাখার নেতাকর্মীদের নামে এসআই রাশেদ বাদী হয়ে একটি অস্ত্র মামলা দায়ের করেছেন বলে জানান ওসি।

Comments
Loading...