টেলিভিশনে বিজ্ঞাপন প্রচারের ব্যাপারে নিয়ন্ত্রণ আরোপ করতে যাচ্ছে সরকার: তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলছেন,

0

inu-400x234তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলছেন, টেলিভিশনে বিজ্ঞাপন প্রচারের ব্যাপারে নিয়ন্ত্রণ আরোপ করতে যাচ্ছে সরকার।
বিবিসির বাংলাদেশ সংলাপ অনুষ্ঠানে তথ্যমন্ত্রী জানান, সরকার যে সম্প্রচার নীতিমালা করতে যাচ্ছে তাতে এ বিষয়টি থাকবে।
টিভি চ্যানেলগুলোতে নাটক বা অন্যান্য অনুষ্ঠানের ফাঁকে ফাঁকে লম্বা সময় ধরে অতিরিক্ত বিজ্ঞাপন প্রচার করাটা দর্শকদের বিরক্তির কারণ হয়ে ওঠার প্রেক্ষাপটে এমন সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছে সরকার।
অনুষ্ঠানের মাঝে দীর্ঘ সময় ধরে বিজ্ঞাপন প্রচারের বিষয়ে কি বলছেন অনুষ্ঠান নির্মাতারা?
অতিরিক্ত বিজ্ঞাপনের কারণে হতাশ হয়ে নাটক নির্মাণ ছেড়ে দিয়েছেন বলে জানালেন এ সময়কার দর্শকপ্রিয় একজন টেলিফিল্ম এবং বিজ্ঞাপন নির্মাতা অমিতাভ রেজা ।
নিজে বিজ্ঞাপন নির্মাণ করেন বটে কিন্তু সেই বিজ্ঞাপনের অতিরিক্ত প্রচারের কারণেই হতাশা উঠে আসে তার কণ্ঠে ।
অমিতাভ রেজা বলেন, “টেলিভিশন ফিকশন আমি বন্ধ করে দিয়েছি। এখন আর নাটক নির্মাণের প্রতি কোনো আগ্রহ নেই শুধুমাত্র অতিরিক্ত বিজ্ঞাপনের কারণে।”
তিনি বলেন, “টেলিভিশন চ্যানেলগুলোও এখন আর মানসম্মত নাটকের প্রতি ততটা আগ্রহী নয়। তার থেকে এখন টকশো এবং সংবাদের দিকে গুরুত্ব দিচ্ছে। আর বিজ্ঞাপন থেকে তারা রেভিন্যুও পেয়ে যাচ্ছে।”
অমিতাভ রেজা মনে করেন, “পণ্য বাজারজাত করার জন্য বিজ্ঞাপন দরকার। আর তার একটি মাধ্যম টেলিভিশন। অন্যদিকে রেভিন্যু সংগ্রহের জন্য টেলিভিশনের বিজ্ঞাপন দরকার। কিন্তু তার তো একটা নীতিমালা থাকতে হবে।”
এ বিষয়ে বিজ্ঞাপন দাতা, টেলিভিশন কর্তৃপক্ষ এবং নির্মাতাদের নিয়ে আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে একটি কার্যকর নীতিমালা করা দরকার বলে তিনি উল্লেখ করেন।

Comments
Loading...