ধর্ষণ নিয়ে শ্বশুরের মন্তব্যে বিব্রত অভিনেত্রী

0 ২০

hot_ayesha_takia_6829ধর্ষণ নিয়ে শ্বশুরের বিতর্কিত মন্তব্যে বিব্রত হয়েছেন বলিউড অভিনেত্রী আশেয়া টাকিয়া। টুইটারে তিনি লিখেছেন, শ্বশুরের বক্তব্যের সঙ্গে তিনি এবং তার স্বামী কোনোভাবেই একমত পোষণ করেন না বরং তারা এ নিয়ে বিব্রত।

বৃহস্পতিবার উত্তরপ্রদেশের একটি জনসভায় সমাজবাদী পার্টির প্রধান মুলায়ম সিং যাদব বলেন, ‘ছেলেরা ধর্ষণের মতো ছোট খাট কর্ম ভুল করেই করে ফেলে? তাই বলে তাদের ফাঁসি দিতে হবে নাকি?’ শুক্রবার পার্টি প্রধানের এই মন্তব্যের প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে আবু আজমি বলেন, ‘ইসলাম ধর্মে ধর্ষণের শাস্তি ফাঁসি। কিন্তু এক্ষেত্রে শুধু পুরুষরাই শাস্তি পায়। ধর্ষণের ঘটনায় ধর্ষিত নারীরাও সমান দোষী। কারণ তারা পর্দার মধ্যে থাকে না।’

এই বক্তব্যের পর ভারতে সমালোচনার ঝড় উঠেছে। মেয়েদের জন্য এটাকে অবমাননাকর বলে অভিহিত করা হচ্ছে।

২০০৯ সালে আবু আজমির ছেলে ফরহানের সঙ্গে বিয়ে হয় আয়েশা টাকিয়ার। শুক্রবার তিনি টুইটারে লেখেন- শ্বশুরের যে বক্তব্য আমি পড়লাম তা যদি সত্য হয় তাহলে আমি এবং ফরহান এতে অত্যন্ত বিব্রত এবং লজ্জিত (if wot im reading about my father in laws statements r true then me and Farhan are deeply embarrassed n ashamed…)।

তিনি টুইটে আরো বলেন, ‘নিশ্চিতভাবেই আমরা এ ধরনের মানসিকতার অংশীদার নই…এটা নারীর জন্য অমর্যাদাকর। এই বক্তব্য যদি সত্য হয় তাহলে তা দুঃখজনক (We surely do nottt share this mindset…its disrespectful to women.if these statements r true then its sad.)।

তার স্বামী ফরহান লোকসভা নির্বাচনে মুম্বাইয়ের উত্তরাংশের আসন থেকে সমাজবাদী পার্টির প্রার্থী হয়েছেন।

উল্লেখ্য, আয়েশা টাকিয়া (২৭) বিনোদন জগতে ক্যারিয়ার শুরু করেন মাত্র ১৫ বছর বয়সে একটি মিউজিক ভিডিওতে কাজের মাধ্যমে। পরে তিনি সালমান খানে সঙ্গে ওয়ান্টেড মুভি করে খ্যাতি পান। টেলিভিশন হোস্ট হিসেবেও জনপ্রিয়তা পেয়েছেন আয়েশা। ফারহান আজমির সঙ্গে তার বিয়ে হয় ২০০৯ সালে। তাদের একটি ছেলে আছে।

Comments
Loading...