প্লেবয়ের মডেল হননি নায়লা নাঈম

0 ১৯

nayla-nayem-311x186প্লেবয় ম্যাগাজিনের প্রচ্ছদে মডেল হননি আলোচিত মডেল নায়লা নাঈম। এমনকি তার ওয়েবসাইটও হ্যাক হয়নি। শনিবার এমনটাই জানিয়েছেন আলোচিত এই মডেল। একই সঙ্গে গুজবের ওপর নির্ভর করে খবর প্রকাশ করায় গণমাধ্যমের ওপর বিরক্তি প্রকাশ করেছেন।

গত শুক্রবার থেকে নায়লার ওয়েবসাইট হ্যাকড এবং তার প্লেবয় ম্যাগাজিনের মডেল হওয়া নিয়ে গুজব ছড়িয়ে পড়ে। গুজবে ঘি ঢালে কয়েকটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলো। বিষয়টি পরিষ্কার করতেই শনিবার দুপুর সাড়ে ১২টায় এ নিয়ে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন নায়লা।

নিজের বিরুদ্ধে প্রোপাগাণ্ডা চালানোর অভিযোগ করে নায়লা বলেন, ‘‘সম্প্রতি লক্ষ্য করা যাচ্ছে যে, অখ্যাত কিছু মানুষ, ফেসবুক পেজ এবং অনলাইন বাংলা নিউজপেপার আমার সুখ্যাতি ব্যবহার করে নিজেরা বিখ্যাত হওয়ার চেষ্টা করছে।

গত ৩০ মে থেকে তারা ফেসবুকে এবং পাশাপাশি কিছু বাংলা অনলাইন নিউজপেপার আমাকে নিয়ে মিথ্যা তথ্য প্রচার করছে যে, নায়লা নাঈম প্লেবয় ম্যাগাজিনের প্রচ্ছদে নগ্ন হয়েছে, যা সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন। এছাড়া আমার ওয়েবসাইটও হ্যাক করা হয়েছে বলে একটা প্রোপাগাণ্ডা চালানো হচ্ছে।

উপরের প্রোপাগাণ্ডা যে মিথ্যা, সেটা বোঝা যায় আমার ১৮ মে ২০১৪ তারিখের স্ট্যাটাস থেকে। যেখানে, আমি বলেছি যে, আমার নিজের কোনো ওয়েবসাইট নেই। এরকম ভুল, মিথ্যা এবং ভিত্তিহীন সংবাদ আমাকে সামাজিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন করছে এবং এর পরিপ্রেক্ষিতে আমি আইনগতভাবে এবং বিটিআরসি এর কাছে আবেদন করে ব্যবস্থা নেওয়ার কথা চিন্তা করছি।

সুতরাং অখ্যাত, মানসিকভাবে হীন এইসব মানুষ, ফেসবুক পেজ এবং অনলাইন নিউজপেপারদের আমার সুখ্যাতি ব্যবহার করে নিজেরা বিখ্যাত হওয়ার অপচেষ্টা বন্ধ করার আহবান জানাচ্ছি, অন্যথায় নিজেরাই কিন্তু কুখ্যাত হয়ে যাবেন।’’

এছাড়া, শুক্রবারই ফেসবুকে আরেক স্ট্যাটাসে নায়লা জানিয়ে দেন, ফেসবুক ছাড়া তার অন্য কোনো সামাজিক যোগাযোগের সাইটে তার কোনো অ্যাকাউন্ট নেই।

ওই স্ট্যাটাসে তিনি লিখেছেন, ‘‘আমার ফেসবুক ছাড়া অন্য কোন সোসাল মিডিয়া বা অন্য কোথাও কোন প্রোফাইল নেই এবং আমি নিজে কোন ওয়েবসাইটও মেইনটেইন করি না। সবাইকে অনুরোধ করা যাচ্ছে, শুধুমাত্র আমার অফিসিয়াল ফ্যান পেজ- এর মাধ্যমে আমার সাথে থাকার জন্য।’’

Comments
Loading...