বিরোধীদল ধ্বংস করতেই নির্যাতন: জামায়াত

0

Untitled-2 copyঢাকা: জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদ সদস্য ও ঢাকা মহানগরীর সহকারী সেক্রেটারি ড. মু. শফিকুল ইসলামকে মাসুদকে গ্রেফতার করে রিমান্ডের নামে দফায় দফায় নির্যাতন এবং নতুন করে উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে মামলা দিয়ে পূনরায় ১৪ দিনের রিমান্ডের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন জামায়াতের কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য ও ঢাকা মহানগরী আমীর মাওলানা রফিকুল ইসলাম খান।

এক বিবৃতিতে মহানগরী আমীর বলেন, সরকার রাজনৈতিক প্রতিপক্ষকে রাজনৈতিক ও আদর্শিকভাবে মোকাবেলা করতে ব্যর্থ হয়ে বিরোধী দল ধ্বংসের জন্যই জনপ্রিয় ও প্রতিভাবান রাজনৈতিক নেতাদের একের পর এক গ্রেফতার করে নির্মম নির্যাতন চালাচ্ছে। সে ধারাবাহিকতায় ড. মু. শফিকুল ইসলাম মাসুদকে একটি ঘরোয়া বৈঠক থেকে মোহাম্মদপুর থানা গ্রেফতার করে প্রথম দফায় ৪ দিন এবং দ্বিতীয় দফায় ২ দিন রিমান্ডে নিয়ে পৈশাচিক নির্যাতন চালিয়েছে। বিবৃতিতে আরও বলা হয়, ড. মাসুদের শরীরের কোমর থেকে পা পর্যন্ত নির্মম ও নিষ্ঠুর নির্যাতনের তাকে স্থায়ীভাবে পঙ্গু করে দেয়ার ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। তাকে ধানমন্ডি থানার একটি পুরাতন মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে সংশ্লিষ্ট থানা ১০ দিনের রিমান্ড প্রার্থনা করলে আদালত ৪ দিনের পুলিশি রিমান্ড মঞ্জুর করে। উক্ত মামলার এজাহার/ এফ আর আই-এ ড. মাসুদের নাম নেই। অথচ পুলিশ সে মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখিয়ে রিমান্ড প্রার্থনা করেছে।

তিনি বলেন, আগের ধারাবাহিকতায় ড. মাসুদকে সোমবার ২৫ অক্টোবর ৬ টি মিথ্যা মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে হাজির করে মোট ৫৪ দিন রিমান্ড প্রার্থনা করা হলে ১৪ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করা হয়েছে। মূলত প্রথম ৩ টি মামলা ১৪ মাস ও ৪র্থ মামলাটি ২২ মাস আগের। এসব মামলায় শত শত আসামী জামিনে আছেন। শুধুমাত্র রাজনৈতিকভাবে হয়রানী ও জনসমক্ষে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য ষড়যন্ত্রমূলকভাবে মামলা করা হচ্ছে এবং নির্মম ও নিষ্ঠুর নির্যাতন চালানোর জন্যই এসব মিথ্যা, ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত মামলায় রিমান্ড প্রার্থণা করা হয়েছে। যা কোন ভাবেই গ্রহণযোগ্য হতে পারে না।

তিনি আরও বলেন, সরকার বিরোধী দল নির্মূল করে আবারও বাকশালী ও ফ্যাসীবাদী শাসন কায়েমের জন্য ড. মাসুদসহ রাজনৈতিক নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করে নির্মম ও নিষ্ঠুর নির্যাতন চালাচ্ছে। যা সংবিধান, আইনের শাসন ও মানবাধিকারের মারাত্মক লংঘন। তিনি অবিলম্বে ড. মাসুদের বিরুদ্ধে হয়রানীমুলক মামলা প্রত্যাহার ও রিমান্ড বাতিল করে নিঃশর্ত মুক্তি দিতে সরকারের প্রতি আহবান জানান।

Comments
Loading...