বিষণ্ন প্রিয় মানুষটির সাথে যে ধরনের আচরণ করা উচিৎ

0 ১৬

Mekমানুষ বিভিন্ন কারণে হতাশ বা বিষণ্ন হয়ে উঠতে পারে। হতে পারে কোনো চিন্তা চারপাশ থেকে তাকে ঘিরে ধরে। আস্তে আস্তে গ্রাস করে চলে নিমিষেই। তখন তার কাছে জীবনের আনন্দটুকুও ভালোলাগে না। সে তলিয়ে যেতে থাকে অতল গভীরে। ভেবে দেখুন এমন অপ্রিয় ঘটনাগুলো যদি আপনার প্রিয় মানুষটির সাথে ঘটে। সে যদি ক্রমেই এই বিষণ্নতায় আক্রান্ত হয়ে নিজেকে পরিচালিত করে ধ্বংসের দিকে। তাহলে আপনি কি করবেন? এই ধরনের জটিল মুহূর্তে তার প্রয়োজন ভালো ব্যবহার, সচেতন শিক্ষা এবং অনেক বেশি ভালোবাসার। জেনে নিন বিষণ্ন রোগে আক্রান্ত প্রিয় মানুষটির সাথে আপনি অবশ্যই যে ধরনের আচরণ করবেন।

১. একসাথে আনন্দের কিছু কাজ করুন :

আপনার বিষণ্নভরা প্রিয় মানুষটিকে একা না রেখে তার সাথে আনন্দঘন কিছু কাজ করুন যেগুলো তাকে হাসিখুশি রাখবে। তাকে কোনো ধরনের চিন্তার অবকাশই দিবেন না। সবসময় একই সাথে আনন্দঘন কিছু মুহূর্ত পার করুন।

২. তার সাথে অনেক বেশি কথা বলুন :

হতাশায় পড়লে এমনিতেই মানুষ অনেক কম কথা বলে থাকেন। আপনার প্রিয় মানুষটিও যদি কম কথা বলে থাকেন তাহলে তার সাথে আপনি নিজে অনেক বেশি কথা বলার চেষ্টা করুন। তাকে অনেক মজার মজার গল্প শুনিয়ে তাকেও অনেক কথা বলার সুযোগ করে দিন।

৩. তাকে ব্যস্ত জীবনে প্রবেশ করিয়ে দিন :

মানুষ ব্যস্ত থাকলে কোনো ধরনের চিন্তা করার অবকাশ একেবারেই থাকে না। এ কারণে তাকে কোনো একটি ব্যস্ত পেশায় যুক্ত করুন। এতে করে তার বিষণ্নতা অনেকখানি কেটে যাবে।

৪. তাকে নিয়ে দূরে কোথাও ঘুরতে যান :

পরিবেশ পরিবর্তন করলে মানুষের মনের উপরে বেশ প্রভাব ফেলে। এ কারণে আপনার প্রিয় মানুষটির মনের বিষণ্নতা দূরীকরণে তাকে নিয়ে দূরে কোথাও ঘুরতে যান। এতে করে দেখবেন তিনি মানসিকভাবে অনেকটা সুস্থ হয়ে গেছেন।

৫. অফুরন্ত ভালোবাসুন :

সর্বোপরি তাকে অনেক বেশি ভালোবাসুন। সাধারণত বিষণ্ন ব্যক্তিদের ভালোবাসার প্রয়োজন অনেক বেশি। তাহলে তাদের মনের যত ক্ষোভ, নেতিবাচক চিন্তাভাবনা সবকিছু নির্মূল হয়। তাই প্রিয় মানুষটির সাথে তার অবস্থার জন্য কখনও খারাপ ব্যবহার না করে তাকে অনেক বেশি ভালোবাসুন। দেখবেন তিনি কিছুদিনের মধ্যেই সুস্থ হয়ে উঠবেন।

Comments
Loading...