বিহাইন্ড দ্যা সিন অফ ‘পিকে’ এন্ড ‘মুন্না ভাই চালে আমেরিকা’ ট্রেলার।

0 ১৭

munna-bhai-chale-amerika-poster৫ বছর আগে হঠাৎ করেই আমরা একটা ট্রেলার পেয়েছিলাম ‘মুন্না ভাই চালে আমেরিকা’ নামে।ডিরেক্টর রাজকুমার হিরানি।হিলারিয়াস এক ট্রেলার ছিল। ট্রেলার এর ডায়লগেই হাসতে হাসতে অবস্থা খারাপ।সেই রকম একটা মুভি আসতে যাচ্ছে বুঝতে পারলাম।তবে পরে এর আর কোন খোজ খবর পেলাম না,কিছুদিন বাদে জানতে পারলাম এ মুভি আর হচ্ছে না। মুন্না ভাই সিরিজের শেষ মুভি হিসেবে ‘মুন্না ভাই চালে আমেরিকা বানাতে চাচ্ছিলেন হিরানি।মুভির থিম ছিল ‘মুসলিম মানেই টেররিস্ট না’। কাহিনী ছিল এরকমঃ সার্কিট এক মেয়ের প্রেমে পড়ে। বিয়ের আগের দিন মেয়ে পক্ষ জানতে পারে সার্কিট মুসলিম পরিবারের।তাই তারা বিয়ে দিতে চায় না।তাদের ধারনা মুসলমান মানেই সন্ত্রাসি। মুন্না জানতে চাইল কে তাদের বলেছে মুসলিম মানেই সন্ত্রাসি? তারা বলল জর্জ বুশ বলেছে।মুন্না বলল এখনই জর্জ বুশকে সামনে এনে হাজির করতেছি (মুন্না জানত না জর্জ বুশ কে)।পরে জানতে পারে সে আমেরিকার প্রেসিডেন্ট তাই তারা দুজন আমেরিকা যায় তাকে বুঝাতে যে সব মুসলিমি টেররিস্ট না।ফার্স্ট হাফ লেখা কমপ্লিট ছিল।এরি মাঝে কে এসে জানালো এই থিমের একটা মুভি বের হয়েছে নাম ‘মাই নেম ইজ খান’। যদিও হিরানি ফানি সাইড বেছে নিছিল প্লটটা রিপ্রেজেন্ট করার জন্য, কিন্তু থিম এবং আরো অনেকে চিন্তা ভাবনা মিলে যাওয়া তিনি এই মুভি বানানোর চিন্তা বাদ দিলেন এবং একটি মাস্টারপিসের অপমৃত্য ঘটালেন।

একি কারনে আমরা হয়ত পিকে মুভিটাও পেতাম না।পিকের কাহিনি লেখা হয় থ্রি ইডিয়টস এর পরেই।মুভির নাম প্রথমে ছিল ‘টাল্লি’। হিরানি নিজে একটু চেইঞ্জ করে নাম দেন ‘এক থা টাল্লি’। কিন্তু ‘এক থা টাইগার’ রিলিজ হওয়াতে নাম চেইঞ্জ করে ‘পিকে’ রাখেন। মুভির কাজ অনেকাংশ হয়ে গেছে তখন জানতে পারলেন সেইম থিমের মুভি রিলিজ হয়েছে নাম ‘ওহ মাই গড’।মুভি দেখে তাদের মাথায় হাত, একদম তাদের চিন্তা ভাবনার মিলে যাচ্ছে সব।পিকে তে আমির যখন পুলিশের কাছে যায় এর পরের দৃশ্য ছিল সে কোর্টে যায় গড এর নামে কেস করার জন্য। যেটা ওহ মাই গডে পরেশ রাওয়াল করে।যার ফলে রাইটার অভিজাত জোশি এবং হিরানি মিলে আবার কাহিনি নতুন ভাবে লিখেন। তাই মুভিটা বানাতে এত বছর লেগেছে।একি থিমের একটি গুজরাটি থিয়েটার নাটকও বের হয়েছিল কয়েক বছর আগে এবং এরকম একটা অস্ট্রেলিয়ান মুভিও আছে। যার ফলে সব মিলিয়ে খুব হতাশ হয়ে পরেছিলেন হিরানি। কারন তিনি সবসময় চান ইউনিক কিছু করতে।যাই হোক শেষ পর্যন্ত পিকে হয়েছে তাতেই আমরা খুশি।

Comments
Loading...