বৈশাখ উদযাপনে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা

0 ২৪

benojir-intro1-311x186রাজধানীতে বাংলা নববর্ষ বরণসহ পয়লা বৈশাখ উদযাপনে সর্বোচ্চ নিরাপত্তাব্যবস্থা গ্রহণ করা করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি)। একই সঙ্গে শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠান পালনে নগরবাসীর সহায়তা চাওয়া হয়েছে।

শনিবার এক সংবাদ সম্মেলনে ডিএমপির কমিশনার বেনজীর আহমেদ এসব কথা বলেনে। বাংলা নববর্ষ উদযাপন উপলক্ষে নেওয়া নিরাপত্তাব্যবস্থা সম্পর্কে জানাতে রাজধানীর মিন্টু রোডে ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

বেনজীর আহমেদ বলেন, দৃশ্যমান-অদৃশ্যমান সব ঝুঁকির কথা মাথায় রেখে নাগরিকদের জন্য নিরাপত্তাব্যবস্থা সাজানো হয়েছে। সামর্থ্যের সর্বোচ্চ দিয়ে নিরাপত্তাব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

ডিএমপি কমিশনার জানান, উত্সব নির্বিঘ্ন ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে রাজধানীর ২২টি জায়গায় ব্যারিকেড (প্রতিবন্ধকতা) দেওয়া হবে। ১০টির মধ্যে ছয়টি পথ দিয়ে রমনা পার্কে প্রবেশ করা যাবে। চারটি দিয়ে বের হতে হবে। সন্ধ্যা ছয়টার মধ্যে সবগুলো অনুষ্ঠানস্থল ত্যাগ করতে হবে। পয়লা বৈশাখে বাঙালি সংস্কৃতির বাইরের কোনো অনুষ্ঠান করা যাবে না।

বর্ষবরণের কেন্দ্রস্থল রমনা বটমূল, টিএসসি ও এর আশপাশের এলাকায় কোনো ধরনের অস্ত্র, গোলাবারুদ, হাতব্যাগ ইত্যাদি না আনার জন্য নগরবাসীর প্রতি অনুরোধ জানিয়েছে ডিএমপি। এ ছাড়া প্রকাশ্যে ধূমপান করা থেকেও বিরত থাকতে বলা হয়েছে।

এছাড়া সঙ্গে থাকা শিশুদের পকেটে ঠিকানা রাখার অনুরোধ করেছেন ডিএমপি কমিশনার।

কোনো ধরনের গোলযোগ হলে তাত্ক্ষণিকভাবে পুলিশের নিয়ন্ত্রণকক্ষ ও উপনিয়ন্ত্রণ কক্ষে জানাতে বলা হয়েছে।

Comments
Loading...