মিছিল, ভাংচুর, ককটেল নিক্ষেপে আবার শুরু ১৮ দের ৭২ ঘণ্টা

0 ১৫

OBORODHঢাকাঃ আজ ভোর ৬টা থেকে ফের শুরু হচ্ছে বিএনপি নেতৃত্বাধীন ১৮ দলীয় জোট আহূত রাজপথ, রেলপথ ও নৌপথ অবরোধ কর্মসূচি। আগামী মঙ্গলবার ভোর ৬টা পর্যন্ত সারা দেশে এ কর্মসূচি চলবে। এ দিকে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান সাদেক সাদেক হোসেন খোকাকে গ্রেফতার ও রিমান্ডে নেয়ার প্রতিবাদে কাল রোববার সকাল ৬টা থেকে সোমবার সকাল ৬টা পর্যন্ত রাজধানীতে ২৪ ঘণ্টার হরতাল ডেকেছে ঢাকা মহানগর বিএনপি।
একতরফা নির্বাচনের তফসিল প্রত্যাহার ও নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতে টানা ছয় দিনের অবরোধের শেষ দিনে বৃহস্পতিবার বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সালাহউদ্দিন আহমেদ নতুন এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন।
তিনি শান্তিপূর্ণভাবে এই কর্মসূচি পালনের জন্য দেশবাসীকে আহ্বান জানান। একই সাথে তিনি বলেন, সরকার যখনই নির্দলীয় সরকারের দাবি মেনে নেয়ার ঘোষণা দেবে তখনই আমরা অবরোধ কর্মসূচি প্রত্যাহার করে নেব।
এর আগে তফসিল ঘোষণার প্রতিবাদে ২৬ নভেম্বর থেকে টানা ৭১ ঘণ্টার অবরোধ করে ১৮ দলীয় জোট। এরই মধ্যে হরতালে নাশকতার অভিযোগে বিএনপির মুখপাত্র মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ শীর্ষ নেতাদের বিরুদ্ধে মামলা হলে কেবল শুক্রবার বিরতি দিয়ে ৩০ নভেম্বর আরো ৭২ ঘণ্টার অবরোধ ডাকা হয়। পরে সেই অবরোধের মেয়াদ বাড়ানো হয় বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টা পর্যন্ত। এবারো শুক্রবার বিরতি দিয়ে শনিবার থেকে তৃতীয় দফা অবরোধের ডাক দিয়েছে বিএনপি নেতৃত্বাধীন জোট। জানা গেছে, কোনো সমঝোতা না হলে আগামী সোমবার ঘোষিত অবরোধের সময়সীমা আরো বাড়ানো হবে।
বিএনপি ও শরিকদের দাবি, তফসিল বাতিল করে নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের ব্যবস্থা করতে হবে। অন্য দিকে মতাসীন আওয়ামী লীগ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অধীনেই ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী ৫ জানুয়ারি ভোট গ্রহণের ঘোষণা দিয়েছে।
বাংলাদেশের এই রাজনৈতিক সঙ্কটের মধ্যেই ঢাকা এসেছেন জাতিসঙ্ঘ মহাসচিবের দূত রাজনৈতিকবিষয়ক সহকারী মহাসচিব অস্কার ফার্নান্দেজ-তারানকো। তিনি সাত মাস আগেও একবার ঢাকায় এসে প্রধান দুই দলের মধ্যে সংলাপের তাগিদ দিয়ে গিয়েছিলেন।
জাতিসঙ্ঘ মহাসচিব বান কি-মুন নিজেও দুই নেত্রীকে চিঠি দিয়ে সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠানে বাংলাদেশকে ‘সব ধরনের সহযোগিতার’ আশ্বাস দিয়েছেন।
দুই দলের সমঝোতার জন্য জাতিসঙ্ঘ প্রয়োজনে মধ্যস্থতার উদ্যোগ নিতে পারে বলেও ওই চিঠিতে ইঙ্গিত দেয়া হয় বলে একটি সূত্র জানায়।

Comments
Loading...