‘মুসলমানদের দেশে ইসলামী রাজনীতিই থাকবে’

0 ৩৩

ধর্মীয় রাজনীতি বন্ধে আইন করার দাবির তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন ইসলামী ঐক্যজোটের মহাসচিব ও হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় নেতা মুফতী ফয়জুল্লাহ।

mufti_foyzullah-311x186রোববার এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, “সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলনের ব্যানারে তথাকথিত সুশীল নামধারী কিছু বুদ্ধিজীবি গতকাল ঢাকায় ধর্মীয় রাজনীতি বন্ধে আইন করার দাবি জানিয়েছে। আমরা তাদের এই উদ্ভট দাবির তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করছি।”

তিনি আরো বলেন, “দ্ব্যর্থহীন ভাষায় ঘোষণা করছি, মুসলমানদের দেশে ইসলামী রাজনীতিই থাকবে। কারো চোখ রাঙানো কিংবা হুমকি, ধমকি ও আস্ফালনে ইসলামী রাজনীতি বন্ধ হবে না।”

বিবৃতিতে মুফতী ফয়জুল্লাহ বলেন, “সুশীল নামধারী এসব কুশীল এবং কুৎসিত মস্তিষ্কের লোকদের বিরুদ্ধে আমাদের বলার কিছু নেই। ধর্মীয় রাজনীতি নিষিদ্ধের দাবি করা তাদের পক্ষেই সম্ভব। কারণ, তারা বেশ ভালো করেই জানেন, ধর্মীয় রাজনীতি থাকলে মুক্ত সংস্কৃতি আর অসাম্প্রদায়িকতার নামে কোনো অশ্লীলতা আর অসভ্য কর্মকাণ্ড চালানো তাদের পক্ষে সম্ভব নয়। তাই সুশীল সমাজ নামধারী এসব বিকারগ্রস্ত লোকগুলোর এমন উদ্ভট দাবি-দাওয়ায় আমরা মোটেও বিস্মিত নই।”

“যুগে যুগে এমন অনেক ইসলামদ্রোহী মুখের ফু দিয়ে ইসলামের জ্বলন্ত মশাল নেভাতে চেয়েছে, তাতে বরং উল্টো তাদেরই মুখ পুড়ে গেছে। কাজেই মুখপোড়া এসব নাস্তিকের আস্ফালন দমাতে ইসলামের সৈনিকদের একটি মাত্র নারায়ে তাকবিরই যথেষ্ট” বলেন মুফতি ফয়জুল্লাহ।

Comments
Loading...