রবীন্দ্রনাথ আমার বয়ফ্রেন্ড : পরী মনি

0

moniনজরকাড়া গ্ল্যামার নিয়ে ঢালিউডে এসেই বেশ শক্ত আসন তৈরি করে নিয়েছেন নবাগত চলচ্চিত্র অভিনেত্রী পরী মনি। মিষ্টি ব্যবহার আর নান্দনিক সৌন্দর্যের সঙ্গে যোগ হয়েছে সাবলীল অভিনয়। এ নিয়েই চলছে পরী মনির চলচ্চিত্র অভিযান। একের পর এক নতুন চলচ্চিত্রে কাজ করে চলেছেন এ অভিনেত্রী। সম্প্রতি তিনটি নতুন ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন তিনি। তিনটি ছবিতেই পরী মনির বিপরীতে অভিনয় করবেন চিত্রনায়ক সাইমন। এদিকে শুটিং শেষ করেছেন রানা প্লাজার রেশমা ও ভালোবাসা সীমাহীন নামের দুটি চলচ্চিত্রের। এখন শুটিং করছেন ইনোসেন্ট লাভ এবং আমার মন জুড়ে তুই নামের দুটি চলচ্চিত্রে।

গত ৩১ মার্চ থেকে ১০ এপ্রিল পর্যন্ত কাপ্তাই ও কক্সবাজারের বিভিন্ন লোকেশনে শুটিং করেছেন ইনোসেন্ট লাভ চলচ্চিত্রের। এরপর ঢাকায় ফিরেই পরী মনি তার চলচ্চিত্র ক্যারিয়ার আর ব্যক্তিজীবনের নানা গল্প নিয়ে প্রতিবেদকের মুখোমুখি হয়েছিলেন। আলাপচারিতার সারসংক্ষেপ তুলে ধরা হলো পাঠকদের জন্য। প্রতিবেদক : এখন কী নিয়ে ব্যস্ত আছেন? পরী মনি : এখন তো আমার ব্যস্ততা চলচ্চিত্র নিয়েই। ১১ এপ্রিল কক্সবাজার থেকে অপূর্ব রানা পরিচালিত ইনোসেন্ট লাভ চলচ্চিত্রের শুটিং করে ঢাকায় ফিরেছি। ১৩ এপ্রিল থেকে  আবার ওয়াজেদ আলী সুমনের আমার মন জুড়ে তুই চলচ্চিত্রের শুটিং শুরু করেছি। এরপর এফ আই মানিক পরিচালিত সারপ্রাইজ নামের আরো একটা নতুন চলচ্চিত্রের শুটিং শুরু হবে। প্রতিবেদক : কাপ্তাই ও কক্সবাজারে কেমন কাটল? পরী মনি : কাপ্তাই যাওয়ার আগের দিন নরসিংদীর হলিডে ড্রিম পার্কে একটি গানের দৃশ্যে শুটিং শেষ করেই রাতের গাড়িতে কাপ্তাই গিয়েছি। সারা রাতের জার্নিতে অনেক টায়ার্ড ছিলাম। কিন্তু কাপ্তাই নেমেই সব কষ্ট এক নিমেষে দূর হয়ে গেছে। প্রকৃতি এত সুন্দর হতে পারে, সেটা কাপ্তাই গিয়ে বুঝতে পেরেছি। কাপ্তাই আমি এবারই প্রথম গিয়েছি। আমি মুগ্ধ। কক্সবাজারেও খুবই ভালো সময় কেটেছে। সেখানে ইনোসেন্ট লাভ ছবির একটা আইটেম গানের শুটিং হয়েছে।

প্রতিবেদক : শুনলাম, নতুন তিনটা চলচ্চিত্রে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন? পরী মনি : হ্যাঁ, ৩টা চলচ্চিত্রেই আমার বিপরীতে নায়ক হিসেবে থাকবে সাইমন। এ ছবিগুলো হচ্ছে শাহীন সুমনের প্রবাসী ডন, এফ আই মানিকের সারপ্রাইজ এবং অপূর্ব রানার উড়ে যায় মন। এর মধ্যে এফ আই মানিক ভাইয়ের সারপ্রাইজ চলচ্চিত্রের শুটিং শুরু হচ্ছে এ মাস থেকেই। প্রতিবেদক : আপনার শুরু তো নাটক দিয়ে? পরী মনি : নাটকে আমার অভিনয় ক্যারিয়ার শুরু হয়েছে। কিন্তু এখন চলচ্চিত্রেই শুধু কাজ করছি। আসলে চলচ্চিত্রে অনেক সময় দিতে হয়। চলচ্চিত্রে কাজ করে নাটকে কাজ করার মতো তেমন সময় থাকে না। এখন টানা কাজ করে যাচ্ছি। রানা প্লাজার রেশমা দিয়ে শুরু হয়েছে। এরপর তো বলা যায়, চলচ্চিত্রের শুটিং নিয়েই আছি। তবে নাটকেও কাজ করতে চাই। প্রতিবেদক : ক্যারিয়ার নিয়ে আপনার স্বপ্নের কথা বলুন? পরী মনি : আমার স্বপ্ন তো এখন চলচ্চিত্রকে ঘিরেই। চলচ্চিত্র নিয়েই স্বপ্ন দেখছি। একদিন ঢালিউডে শীর্ষ নায়িকা হব। মানুষ আমার অভিনয় পছন্দ করবে। আমার অভিনয় দেখে সবাই আমাকে ভালোবাসবে। চলচ্চিত্র অঙ্গনটা এখন আমার প্রফেশন এবং ভালো লাগার জায়গা হয়ে গেছে। এটা নিয়েই স্বপ্ন সাজাচ্ছি।

প্রতিবেদক : চলচ্চিত্রে কার অভিনয় ভালো লাগে? পরী মনি : আমি শাবানা আপার একনিষ্ঠ ভক্ত। চিত্রনায়ক আলমগীরের অভিনয় ভালো লাগে। এ ছাড়া রাজ্জাক স্যার, কবরী আপাসহ অনেকেরই অভিনয় ভালো লাগে। বলিউডে ক্যাটরিনাকে ভালো লাগে। আমার কাছে অভিনয়টা আসলে ছবির ওপর ডিপেন্ড করে। একেক ছবিতে একেকজনকে ভালো লাগে। প্রতিবেদক : আপনাকে যদি বলা হয়, প্রাক্তন নায়কদের বিপরীতে অভিনয় করতে, আপনি কার বিপরীতে নায়িকা হতে চাইবেন? পরী মনি : আমি চিত্রনায়ক আলমগীরের অনেক বড় ফ্যান। তার বিপরীতে অভিনয় করতে পারলে সেটা আমার জন্য অনেক বড় সৌভাগ্যের হবে। আমার খুবই ইচ্ছা আছে, ওনার সঙ্গে কোনো সিনেমাতে অভিনয় করার। তবে ওনার বিপরীতে তো এখন অভিনয় করা যাবে না। প্রতিবেদক : এবার ব্যক্তিজীবনের গল্প বলুন? পরী মনি : ব্যক্তিজীবনে তো আমি পড়াশোনা করছি। মিরপুর সরকারি বাঙলা কলেজে ইন্টারমিডিয়েট পড়ছি। চলচ্চিত্রের বাইরে যতটা সময় থাকে সেটা পড়াশোনার পেছনেই চলে যায়। ফলে আমার জীবন মানেই পড়াশোনা ও চলচ্চিত্র। আর পরিবারের সবার ভালোবাসা।

প্রতিবেদক : আপনার জন্ম কোথায়? পরী মনি : আমার জন্ম হয়েছে যশোরে দাদাবাড়িতে। কিন্তু আমি বড় হয়েছি বরিশালের নানাবাড়িতে। এসএসসি পর্যন্ত বরিশালেই থেকেছি। এরপর এইচএসসিতে ঢাকায় এসে ভর্তি হয়েছি। আমি বরিশাল ও যশোর দুই জায়গাকেই খুব মিস করি। প্রতিবেদক : পাঠ্যবইয়ের বাইরে বই পড়া হয় কেমন? পরী মনি : হ্যাঁ, বই তো অবশ্যই পড়ি। আমার প্রিয় লেখক রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর। রবীন্দ্রনাথের অনেক বই আমি পড়েছি। আমার কাছে মনে হয়, তিনি যেন আমার সব অনুভূতি বুঝতে পারেন। রবীন্দ্রনাথের লেখা পড়লে মনে হয়, তিনি যেন আমার কথাগুলোই লিখেছেন। রবীন্দ্রনাথের ছোটগল্প, কবিতা আমার খুবই ভালো লাগে। প্রতিবেদক : আপনার কি বিশেষ কোনো ভালোবাসার মানুষ আছেন? পরী মনি : ভালোবাসি তো অনেককেই। আমার পরিবারকে ভালোবাসি, বন্ধুদের ভালোবাসি। আর বিশেষ কোনো একজনের কথা যদি জানতে চান, তাহলে সেই একজন হচ্ছেন কবিগুরু শ্রীরবীন্দ্রনাথ ঠাকুর। বলতে পারেন রবীন্দ্রনাথ আমার বয়ফ্রেন্ড (হা হা হা)। তিনি আমার অনুভূতির সঙ্গে মিশে আছেন। প্রতিবেদক : রবীন্দ্রনাথের সঙ্গে আপনার প্রেম অমর হোক, অনেক ধন্যবাদ আপনাকে পরী মনি : আপনাকেও অনেক ধন্যবাদ। শুভ কামনা সকলের জন্য।

Comments
Loading...