শত কোটির প্রতীক্ষায় বলিউডের চার ছবি

0

4 bolly movieপাইরেসি আর নকল ছবি নির্মাণের অভিযোগে আমাদের দেশি সিনেমা ইন্ডাস্ট্রির অবস্থা নাজুক, এ কথা প্রায় সবাই জানেন ও মানেন! এবং মেনে হাত গুটিয়ে সিনেমা থেকে কেউ কেউ নাকি ব্যবসাও গুটিয়ে নিচ্ছেন। অথচ আমাদের পাশের দেশেই যেন চলছে সিনেমার স্বর্ণযুগ অন্তত সে দেশের মানুষ নিজেদের সিনেমা হলে গিয়ে নিজেদের ছবি দেখেন। সে যাই হোক, আমাদের দেশে সিনেমা বাণিজ্যিকভাবে সফল না হলেও ভারতীয় সিনেমা হরদম ব্যবসা করছে। পঞ্চাশ কোটি টাকা ব্যয়ে সিনেমা সেখানে হরদম একশো কোটি, দুইশো কোটি রূপি ব্যবসা করে সেদেশের সিনেমা ইন্ডাস্ট্রিকে জিইয়ে রাখছে। চলতি বছরের শুরুতে সেখানে যেমন বেশ কিছু ছবি বিশাল অংকের টাকা আয় করেছে, ঠিক তেমনি প্রতীক্ষায় আছে আরো বেশ ক’টি সিনেমা। যেগুলো হয়তো ভারতের অর্থনীতির চাকাকে আরো উর্দ্ধগতি করতে ভূমিকা রাখবে।

চলতি বছরে মুক্তির প্রতীক্ষায় থাকা ছবির তালিকায় বলিউডের বিগ বাজটের ছবির মধ্যে অন্তত আরো চারটি ছবির কথা ঘুরে ফিরে উঠে আসছে। সিনে সমালোচকরা বলছেন, মুক্তি প্রতীক্ষায় থাকা আসন্ন সিনেমাগুলোর মধ্যে বেশকিছু ছবিরই একশো কোটি রূপি আয় করার সম্ভাবনা রয়েছে। কারণ হিসেবে সিনে আলোচকরা দাপুটে অভিনেতা, অভিনেত্রীদের কথাই বলছেন, বলছেন নির্মাতা আর প্রচার প্রচারণার কথাও। চলতি বছরে মুক্তির অপেক্ষায় থাকা চলচ্চিত্রগুলোর মধ্যে বাজিরাও মাস্তানি, দিলওয়ালে, তামাশা এবং প্রেম রতন ধন পায়োকে অন্যতম ভেবে এগিয়ে রাখা হয়েছে। কারণ ছবিগুলোতো আর যেই সেই মানুষের নয়! যেসব কারণে চলতি বছর বলিউড মাত করবে সম্ভাব্য চারটি ছবি, তার কারণ অনুসন্ধান করা হল পুরো লেখায়।

প্রেম রতন ধন পায়ো: নানা কারণেই মুক্তির প্রতীক্ষায় থাকা ছবির সম্ভাব্য চূড়ান্ত সাফল্যের তালিকায় স্থান পেয়েছে ছবি ‘প্রেম রতন ধন পায়ো’। এর প্রথম কারণ, দীর্ঘ ১৬ বছর পর সুরজ বারজাত্যের ছবিতে ফিরলেন সুপারস্টার অভিনেতা সালমান খান। তাছাড়া ক’দিন আগেই সালমান অভিনীত ছবি ‘বজরঙ্গি ভাইজান’ ভারতের ইতিহাসে নাম লিখিয়েছে আয়ের দিক থেকে। অন্যদিকে ছবিতে সালমান থাকা মানেই প্রচারণা হবে ধুম ধারকা, শাহরুখের পরেই অন্তত প্রচারণার দিক দিয়ে সব সময় সাড়া তুলেন সালমান! আর এই ছবিতে সালমানকে দ্বিতীয়বারের মত সোনম কাপুরের সাথে অভিনয় করতে দেখা যাবে। এরআগে ‘সাওয়ারিয়া’ নামের একটি ছবিতে বিশেষ চরিত্রে সোনম কাপুরের বিপরীতে দেখা গিয়েছিল সালমান খানকে। তাছাড়া এরমধ্যে বেশ ক’টি গানও ব্যাপক হিট করেছে। সব মিলিয়ে ‘প্রেম রতন ধন পায়ো’ একশো কোটির দেখা পেতে পারে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

তামাশা: অন্যদিকে এই বছরের আরেক আলোচিত ছবি দীপিকা পাডুকোন ও রনবীর কাপুর অভিনীত ‘তামাশা’। এরইমধ্যে টিজার, ট্রেলার, পোস্টার আর ভিডিও গানে গানে  আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে ছবিটি। ‘রকস্টার’-এর পর মেধাবী নির্মাতা ইমতিয়াজ আলীর সঙ্গে কাজ করতে চলেছেন রনবীর কাপুর। ইমতিয়াজ আলীর রকস্টারে রনবীরের অভিনয় ব্যাপক প্রশংসিত হয়েছিল। আর প্রথমবারের মত এই নির্মাতার পরিচালনায় জুটি বাধলেন রনবীর কাপুর ও দীপিকা পাডুকোন। যদিও এর আগে ‘ইয়ে জওয়ানি হে দিওয়ানি’তে মাত করেছেন এই জুটি। তবে সবকিছুর পরও দুই খ্যাতনামা জুটির জন্য এই ছবিটিও একশো কোটি ‍রূপি অর্জন করতে সমর্থ হবে বলে মনে করছেন সিনে বোদ্ধারা।

দিলওয়ালে: চলতি বছরের সবচেয়ে আলোচিত ছবি ‘দিলওয়ালে’। এর প্রধান ও অন্যতম কারণ দীর্ঘ পাঁচ বছর পর বলিউডের অন্যতম সফল জুটির এক হওয়া! শাহরুখ-কাজল। নব্বই দশকে তাদের ক্যামেস্ট্রিতে মূহ্যমান ছিল ভারতীয় ছবির দর্শক। বিশেষ করে শাহরুখ-কাজল জুটির ইতিহাস সৃষ্টি করা ছবি ‘দিলওয়ালে দুলহানিয়া লে জায়েঙ্গে’র জন্য এখনো মানুষের মুখে মুখে ফেরে এই দুর্দান্ত জুটির কথা। সব শ্রেণির দর্শকের পাশাপাশি কুড়ি বছর আগের সেই ছবির কথা ভেবে  সাধারণ ভক্ত অনুরাগীরা এখনো রোমাঞ্চিত হন! আর এই জনপ্রিয়তাকে কাজে লাগিয়ে রোহিত শেঠি নির্মাণ করছেন ‘দিলওয়ালে’। মনে করা হচ্ছে শাহরুখ-কাজল জুটির এই ছবিটি বক্স অফিস কাঁপিয়ে দিতে সক্ষম হবে। কারণ হিসেবে অনেকেই মনে করছেন দীর্ঘদিন পর শাহরুখও পর্দায় ফিরছেন। সত্যিই, চলতি বছরেতো বটেই গত বছরের মাঝামাঝিতে মুক্তি পেয়েছিল শাহরুখ অভিনীত ছবি ‘হ্যাপি নিউ ইয়ার’। আর ওই ছবির পর এই বছরেও আর কোনো ছবি শাহরুখের এখনো মুক্তি পায়নি। আর এই কারণেই শাহরুখ ভক্ত ও অনুরাগীরা মুখিয়ে আছেন শাহরুখের সিনে পর্দায় ফেরার জন্যে।

‘দিলওয়ালে’-তে শাহরুখ-কাজল ছাড়াও আছেন বরুন ধাওয়ান ও কৃতি স্যানন। এই নতুন জুটিরও এরইমধ্যে বেশকিছু ভক্ত অনুরাগী তৈরি হয়েছে। বিশেষ করে বরুন ধাওয়ান অভিনীত সর্বশেষ ছবি ‘এবিসিডি ২’- চলতি বছরের শুরুতে প্রায় দেড়শো কোটি রুপি অর্জনও করেছে। সবকিছু মিলিয়ে আলোচকরা ‘দিলওয়ালে’-কে চলতি বছরে আয়ের দিক থেকে সেরার তালিকায় অগ্রীম নাম তুলে দিলেন!

বাজিরাও মাস্তানি:  বলিউডের ছবিতে সঞ্জয় লীলা বানসালি মানেই ছবি হিট। সেই দেবদাস থেকে শুরু করে তার সর্বশেষ পরিচালিত ছবি ‘রাম লীলা’ পর্যন্ত সবক’টি ছবিই দারুণ সাড়া জাগিয়েছে পুরো ভারত বর্ষে। অনেকেই মনে করছেন সঞ্জয় লীলার অতীত কর্মের জন্যই তিনি তার আসন্ন ছবি ‘বাজিরাও মাস্তানি’ ছবিটিতেও সেই সাক্ষরই রাখবেন। তাছাড়া ছবিটি যে দারুণ সাফল্য অর্জন করবে তার কথাও বলে দেয়া যায় ছবিটির স্টার কাস্ট দেখে। কারণ এই ছবিতে অভিনয় করছেন ‘রাম লীলা’ খ্যাত অভিনেতা রনবীর সিং, বলিউডের আবেদনময়ী অভিনেত্রী প্রিয়্ঙ্কা চোপড়া এবং অসাধারণ অভিনেত্রী দীপিকা পাডুকোন। সিনে বিশ্লেষকরা বলছেন, শুধু স্টার কাস্টের জন্যই নয়, বরং সঞ্জয় লীলা সিনেমার মধ্য দিয়ে যে অসাধারণ আখ্যান বর্ণনা করেন তা দেখতেই মানুষ সিনেমায় আসবে। অন্যদিকে ছবির একাধিক গান এরইমধ্যে ইউটিউবে প্রকাশিত হওয়ার পর পরই রেকর্ড পরিমাণ দেখা ও শোনা হয়ে গেছে। সঞ্জয় লীলা বানসালি পরিচালিত ‘বাজিরাও মাস্তানি’ ছবিটি আসছে ডিসেম্বরের ১৮ তারিখে মুক্তি দেয়ার কথা। ঠিক একই দিনে বলিউডে মুক্তি পেতে যাচ্ছে বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খান অভিনীত ছবি ‘দিলওয়ালে’।

Comments
Loading...