শপথের আগেই কংগ্রেসের সঙ্গে টানাপোড়েনে কেজরিওয়াল

0 ১১
amadmiঢাকা: আম আদমি পার্টিকে (আপ) সমর্থন করা নিয়ে অসন্তোষ শুরু হয়েছে কংগ্রেসের অন্দরমহলে। ফলে মঙ্গলবার বিক্ষুব্ধ কংগ্রেস নেতারা নয়া দিল্লির কংগ্রেস সদর দপ্তরে (এআইসিসি) বিক্ষোভ করেছেন।
এব্যপারে কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক জনার্দন দ্বিবেদী বলেছেন, ‘এটা সত্যি যে, আমাদের দলের অনেক কর্মী অসন্তুষ্ট, বাইরে থেকে আপকে সমর্থন করার বিষয়ে। কিন্তু যেহেতু সমর্থনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়ে গিয়েছে তাই এ ছাড়া আর কোনও পথ নেই।’
যদিও আপ প্রধান অরবিন্দ কেজরিওয়াল ফের বলেছেন, দুর্নীতিতে যুক্ত কংগ্রেস এবং বিজেপি কোনও দলের নেতাকেই ছাড়া হবে না। সবার বিরু‌দ্ধেই তদন্ত হবে। অর্থাৎ কেজরিওয়ালের শপথের আগেই কংগ্রেসের সঙ্গে টানাপোড়েন শুরু হয়ে গেলো আম আদমি পার্টির৷
জানা যায়, বুধবার নিজের মন্ত্রিসভা ঘোষণা করবেন কেজরিওয়াল৷ এজন্য মঙ্গলবার অরবিন্দ জানিয়েছেন, জনগণের মাঝেই তিনি শপথ নিতে চান।
এরইমধ্যে কেজরিওয়াল দিল্লির গভর্নর নজিব জংয়ের কাছে মন্ত্রিসভার ছয় সদস্যের নাম জমা দিয়েছেন। অতি শিঘ্রই বাকি নামগুলোও জমা দেয়া হবে বলে জানা গেছে।
কংগ্রেস কর্মীদের অসন্তোষ মোকাবিলায় এআইসিসি সাধারণ সম্পাদক জনার্দন দ্বিবেদী বলেছেন, শর্তসাপেক্ষেই কংগ্রেস আম আদমিকে সমর্থনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। কংগ্রেসের আটজন বিধায়ক আম আদমিকে সমর্থন করেছে কিন্তু দলটি যদি তাদের প্রতিশ্রুতি পালন করতে না পারে তাহলে সঙ্গে সঙ্গে সমর্থন তুলে নেয়া হবে।
এদিকে দিল্লির হবু মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল মঙ্গলবার দুই মিনিটের একটি ভিডিও কনফারেন্সে নিজের এবং দল সম্পর্কে বার্তা দেন৷ তিনি বলেন, ‘দুর্নীতির সঙ্গে কোনও মতেই আপস নয়। বিজেপি এবং কংগ্রেসের যে মন্ত্রীরা দুর্নীতির সঙ্গে যুক্ত তাদের বিরু‌দ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে। এখানকার ছাব্বিশ লক্ষ মানুষের সমর্থন নিয়ে আমরা সরকার গড়ছি। মানুষের প্রত্যাশা পূরণ করবোই।’ একইসঙ্গে তিনি লালবাতি লাগানো গাড়ি এবং অতিরিক্ত নিরাপত্তা নেবেন না বলে জানিয়ে দিয়েছেন। এমনকি মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে বরাদ্দ বাড়িও না নেয়ার সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন তিনি।
Comments
Loading...