অস্ত্রধারী আটক, ছাত্রলীগের বিক্ষোভ

0 ১৭

ru-clash1-311x186অস্ত্রবাজির অভিযোগে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সুদীপ্ত সালাম ও বর্তমান কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক আসিফকে অস্ত্রসহ আটক করেছে মহানগর ডিবি পুলিশ। সোমবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের টুকিটাকি চত্বর থেকে তাদের আটক করা হয়।

আটক সুদিপ্ত সালামকে গত ২ ফেব্রুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র আন্দোলনে শিক্ষার্থীদের ওপর প্রকাশ্যে অস্ত্র উঁচিয়ে গুলি ছুড়তে দেখা গেছে। এছাড়া তার বিরুদ্ধে পুলিশ ওপর হামলাসহ ৬টি মামলা রয়েছে। এছাড়াও তার বিরুদ্ধে একাধিক বার ক্যাম্পাসে সাধারণ শিক্ষার্থীদের মারধর, অস্ত্রবাজি,অভিযোগ রয়েছে।

সর্বশেষ গত রোববার বিকেলে চাঁদা না দেয়ায় বিশ্বদ্যিালয়ের ইসলামিক স্টাডিস বিভাগের তৃতীয় বর্ষের আব্দুল মুয়িজ ও ইমরান নামের দুই শিক্ষার্থীকে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে মাথা থেতলে দেয় সালাম ও আসিফ।

আটকের প্রতিবাদে ছাত্রলীগ কর্মীরা প্রক্টর অফিস ও জনসংযোগ দপ্তরে ভাঙচুর করে ঢাকা-রাজশাহী মহাসড়ক প্রায় এক ঘণ্টা অবরোধ করে রাখে। একই সময় ছাত্রলীগ বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল রুটের বাস চলাচলও বন্ধ করে দেয়। এতে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয় কয়েক হাজার শিক্ষার্থীকে।

ক্যাম্পাস সূত্রে জানা যায়, রাবি শাখা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সুদীপ্ত সালাম, বতর্মান কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক আসিক বিশ্ববিদ্যালয় টুকিটাকি চত্বরে বসে আড্ডা দিচ্ছিল। এ সময় মহানগর ডিবি পুলিশ এসে তাদের গ্রেপ্তার করে।

রাবি ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এসএম তৌহিদ আল হোসেন তুহিন বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র হিসেবে আমাদের একটা মূল্যবোধ আছে। পুলিশ অন্যায়ভাবে সাধারণ শিক্ষার্থীদের মাঝ থেকে আমাদের নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তার করে পেটাতে পেটাতে নিয়ে গেছে। আমরা এর প্রতিবাদ জানাই।

অবিলম্বে তাদের ছেড়ে দেয়া না হলে কঠোর আন্দোলনের ঘোষণা দেন তিনি।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর তারিকুল হাসান বলেন, “আমরা বিষটি দেখছি। বিশ্ববিদ্যালয়ের শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখতে পরিস্থিতি অনুযায়ী যে কোনো সময় যে কোনো ধরণের পদক্ষেপ নেয়া হতে পারে।

মহানগর ডিবি পুলিশের ওসি সাইদুর রহমান ভুইয়া বলেন, সালাম ও আসিফকে বিশ্ববিদ্যালয়ে অস্ত্রবাজি ও চাঁদাবাজির অভিযোগে আটক করা হয়েছে। তাদের এখন ডিবি পুলিশ হেফাজতে রাখা হয়েছে।

Comments
Loading...