কেমন অনুভূতির প্রকাশ হয় যখন এক শরীরের দুই জন্ম……!

0 ২০

Untitled-2 copyপ্রেম কোনো বাধাই মানে না। আরো একবার কথাটা প্রমাণ করে ছাড়লেন অরিন অ্যান্ড্রু আর কেটি হিল। বছর দুয়েক আগে লিঙ্গ পরিবর্তনকারী দলের একটা অনুষ্ঠানে তাঁদের দেখা। যুক্তরাষ্ট্রের ওকলাহোমার তালসায় দলটির সদস্যরা লিঙ্গ পরিবর্তনের অভিজ্ঞতা বিনিময় করত। আর সবাই ছিল টিনএজার। ওখানেই একে অপরকে জীবনের গল্প শুনিয়েছিলেন অ্যান্ড্রু আর হিল।

১৭ বছর বয়সী অ্যান্ড্রু নামের ছেলেটা একসময় ছিলেন মেয়ে। তখন তাঁর নাম ছিল এমারল্ড। গেল বছরের জুনে অ্যান্ড্রুর বুকে অস্ত্রোপচার হয়। কয়েক দিন আগে থেকেই বেশ অস্বস্তির মধ্যে ছিলেন তিনি। অস্ত্রোপচারের পর আগের চেয়ে ঢের স্বস্তি বোধ করতে থাকেন তিনি। যেখানে-সেখানে স্বচ্ছন্দে চলাফেরা করতে শুরু করলেন। এমনকি ভারোত্তোলনের মতো কঠিন ব্যায়ামও করতে লাগলেন। আর একেবারেই স্বাভাবিক জীবনযাপন শুরু করলেন। আগে যেটা করতে পারেননি।

ওদিকে ১৮ বছর বয়সী কেটির ১৫ বছরই কেটেছে ছেলে হিসেবে। তখন তাঁর নাম ছিল লুক। দুই বছর আগে লিঙ্গ পরিবর্তনের জন্য ডাক্তারের ছুরি-কাঁচির তলায় নিজেকে সমর্পণ করেন। শেষের দুই বছর তাঁদের জন্য বেশ কষ্টকর ছিল। স্কুলে যেতে ভয় পেতেন কেটি। আর অরিনকে তো স্কুলই বদলাতে হয়েছিল। লিঙ্গ পরিবর্তনের কারণে আগের বন্ধুদের হারিয়েছিলেন তিনি। দুঃসহ দিন পেরিয়ে তাঁরা দুজনই এখন সুখী। একে অপরকে পেয়ে সুখী। তাঁদের শরীরের বাহ্যিক পরিবর্তন যা ঘটার ঘটে গেছে। তাঁরা আশা করেন, আত্মীয়পরিজনরা তাঁদের এই পরিবর্তনের ব্যাপারটি সহজ ও স্বাভাবিকভাবেই নেবে। আর আগের মতো দুঃসহ হবে না তাঁদের জীবন।

Comments
Loading...