শিশুকে না খাইয়ে রাখায় মা আটক

0 ১৫
 image_66763_0নিজের সন্তানকে না খাইয়ে রাখার দায়ে জর্জিয়ার ৩৩ বছর বয়সী এক মাকে সোমবার আটক করে জেলে পাঠানো হয়েছে।তার বিরুদ্ধে শিশু নির্যাতন ও নিষ্ঠুরতার অভিযোগ আনা হয়েছে। তার আরো আটটি ছেলেমেয়ে রয়েছে বলে ডেইলি মেইল প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।
জেমি লিয়েন বেন্তলে নামের ওই নারী গত অক্টোবর মাসে এক পুত্র সন্তান প্রসব করেন।জন্মের পর থেকেই তিনি শিশুটিকে অবহেলা করতে থাকেন। তাকে ঠিকমতো খাওয়াতেন না। এতে শিশুটির ওজন কয়েক সপ্তাহে ২ পাউন্ড কমে যায়। অপুষ্টি কাটাতে শিশুটিকে আরো এক সপ্তাহ হাসপাতালে রাখা হয়।কিন্তু মা জেমি এ নিয়ে  মোটেও বিচলিত ছিলেন না। ছয় ঘন্টায় মাত্র দু আউন্স দুধ খাওয়াতেন।
বিচারকদের সন্দেহ জেমি মাদকাসক্ত ছিলেন। নইলে কোনো বাচ্চার এতটা শুকিয়ে যাওয়ার কথা নয়। বাচ্চাটার শরীরে হাড় আর চামড়া ছাড়া কিছু ছিল না।
গত অক্টোবর মাসে স্থানীয় এক হাসপাতালে জেমির বাচ্চা হয়। শিশুটির ব্রেস্টফিডিংয়ের সুবিধার্থে তাকে বেশ কিছু দিন হাসপাতালে রেখে দেয়া হয়। কিন্তু এতে কোনোই পরিবর্তন দেখা যায়নি।দু ঘণ্টা অন্তর বাচ্চার স্তনদানের জন্য নার্স তাকে ডেকে তুলতেন। কিন্তু সে বিরক্ত হতো এবং শিশুটিকে খাওয়াতে চাইতো না। শেষে হাসপাতাল থেকে তাকে তাড়িয়ে দেয়া হয়।
হাসপাতাল ছেড়ে আসার দু সপ্তাহ পর হাসপাতালের নার্স শিশুটিকে দেখতে তার বাড়িতে যান। তিনি মেপে দেখেন তার ওজন দু পাউন্ড কমে গেছে।তার শরীরে হাড় আর চামড়া ছাড়া কোনো মাংস নেই। ক্ষুধায় সে নিজের হাত কামড়াচ্ছে।
এ ঘটনায় মামলা করার পর জেমির বিরুদ্ধে শিশু নির্যাতন ও নিষ্ঠুরতার অভিযোগ দায়ের করা হয়। অভিযোগের ভিত্তিতে তাকে  আটক করে জেলে পাঠানো হয়েছে। অন্য সাত ছেলেমেয়েকে তার কাছ থেকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে।
Comments
Loading...